সর্বশেষ আপডেট : ১৬ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তাহিরপুরে বিএনপির ৩৭নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতিসহ ৩৭বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় নাশকতার মামলা দায়ের করা হয়ছে। গত বুধবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে থানা পুলিশ উপজেলার বড়দল (উওর) ইউনিয়নের কাশতাল গ্রামের রমজান আলীর ছেলে ৯নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন,একই গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে একই ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি এরশাদ মিয়া, দিঘলবাগ গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে ৩নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আলীনুর মিয়া,ব্রাম্মণগাঁও গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে ওয়ার্ড যুবদল নেতা জুয়েল মিয়া।চার নেতাকর্মীকে তাদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। মামলার বাদী উপজেলার ব্রাম্মণগাও গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক সেলিম হায়দার বৃহস্পতিবার দায়ের করেন। মামলাটি রেকর্ড করে সকালে। দুপুরে ওই মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীদের পুলিশ জেলা কারাগারে পাঠায়।

তাহিরপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ঐক্যফ্রন্টের উপজেলা নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব জুনাব আলী বলেন,মঙ্গলবার সন্ধায় জনতা বাজারে বিএনপি ও আওয়ামীলীগ’র দু’কর্মীর মধ্যে কথাকাটাকাটি হয় এরপর বিষয়টি তিলকে তাল বানিয়ে বুধবার রাতে আওয়ামীলীগের স্থানীয় লোকজন নিজেরাই তাদের অফিসে ভাংচুর করে বিএনপির (ধানের শীষ) প্রার্থী সাবেক এমপি নজির হোসেনের নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা থেকে নেতাকর্মীদের দূরে রাখতে হয়রানী করতে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও মামলা দায়ের করেছে। ওই মামলায় উপজেলার বড়দল(উওর)ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি কয়লা আমদানিক কারক নজরুল শাহ,যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এনাম উদ্দিন তালুকদার ও ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক ইউপি সদস্য আবু তাহেরসহ বিভিন্ন গ্রামের ৩৭বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় অজ্ঞাত নামা আসামী করা হয়েছে ২০থেকে ৩০জনকে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার স্থানীয় জনতা বাজারে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের অফিসে ডুকে বিএনপির ২০থেকে ৩০নেতাকর্মী গত ১১ডিসেম্বর মঙ্গলবার সন্ধা সাড়ে ৭টার দিকে মামলার বাদী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সেলিমকে কিল ঘুষি লাথি মারিতে থাকেন,চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে এমনকি আওয়ামী লীগ(নৌকার)প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপির ছবি লিফলেট ছিড়ে ফেলা হয়।
তাহিরপুর থানার মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই মোঃ আনোয়ার হোসেন বৃহস্পতিবার বলেন,আওয়ামীলীগ অফিসে ভাংচুর,ক্ষতিসাধন,নাশকতা ও অন্তর্ঘাত মূলক কার্য সম্পাদনের চেষ্টা ও সহায়তা করার অপরাধে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।






নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: