সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

আমরা ভালো আছি : দ্বিতীয় ভিডিওতে থাই গুহায় আটকা কিশোররা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: গুহায় আটকা থাইল্যান্ডের কিশোর ফুটবল দলের ১২ সদস্য ও কোচের নতুন একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ। নতুন ভিডিওতে কিশোররা ভালো আছে বলে জানালেও নিখোঁজের ১০ দিন অনাহারে থাকায় তাদের অবস্থা এখন চর্মসার। থ্যাম লুয়াং গুহায় আটকা এই কিশোররা কবে নাগাদ উদ্ধার হতে পারে এখন পর্যন্ত সেবিষয়ে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য জানা যায়নি।

নিখোঁজের ১০ দিন পর প্রথমবারের মতো উদ্ধারকারীদের সরবরাহ করা খাবার খাওয়ার পর সতেজ দেখা গেছে অনূর্ধ্ব ১৬ কিশোর এ ফুটবলারদের। ইতোমধ্যে তাদের কাছে কম্বল ও খাবার পৌঁছানো হয়েছে। পাশাপাশি তাদের মেডিকেল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন দুই চিকিৎসক।

বুধবার সকালের দিকে থাই নেভি সিলের ফেসবুক পেইজে ওই ভিডিও প্রকাশ করা হয়। থাই নৌবাহিনীর এলিট শাখা আন্ডারওয়াটার ডিমোলিশন টিমের (ইউডিটি) ডুবুরি এক চিকিৎসকসহ গুহায় আটকা কিশোরদের কাছে গিয়ে ওই ভিডিও ধারণ করে। এ সময় নৌবাহিনীর এক সদস্য কিশোরদের পাশে গিয়ে বসেন।

নিখোঁজ শিশুদের সন্ধান সোমবার খুঁজে পায় দুই ব্রিটিশ ডুবুরির সমন্বয়ে গঠিত থাই উদ্ধারকারী দল। গত ২৩ জুন থ্যাম লুয়াং গুহায় ফুটবলের অনুশীলনে গিয়ে হঠাৎ বন্যার কবলে পড়ে তারা।

নৌবাহিনীর এক ডুবুরি কিশোরদের পাশে বসে পরিবার ও দেশের মানুষের উদ্দেশে কিছু বলার আহ্বান জানায়। এমারজেন্সি ফয়েল কম্বল পরিহিত কিশোররা তখন পরিবার ও দেশের মানুষকে শুভেচ্ছা জানায়।

এর আগে এফএম৯১ ট্রাফিকপ্রো ফেসবুক পেইজে প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা যায়, থাই সেনাবাহিনীর এক সদস্য পায়ে হালকা আঘাতপ্রাপ্ত এক কিশোরকে চিকিৎসা দিচ্ছেন। কিশোররা যেন তাদের পরিবারের সাথে কথা বলতে পারে সে জন্য গুহায় টেলিফোন লাইন বসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আটকাপড়া দলটির কাছে ইতোমধ্যে খাদ্য আর চিকিৎসা পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা হয়েছে।

সূত্র : ব্যাংকক পোস্ট।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: