সর্বশেষ আপডেট : ৮ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বেতন চাওয়ায় কিশোরী গৃহকর্মীকে কুপিয়ে ৩ ভাগে ভাগ করে নর্দমায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতে বেতন চাওয়ায় এক ১৬ বছর বয়সী গৃহকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার পুলিশ জানিয়েছে, হত্যার পর তার দেহ কেটে তিন ভাগে ভাগ করে নর্দমায় ফেলে দেয়া হয়। তাকে হত্যার একদিন পর ৪মে তার দেহের কাটা অংশগুলো মিয়ানওয়ালি নগরের এক নর্দমায় খুঁজে পাওয়া যায়। এ খবর দিয়েছে এনডিটিভি।

খবরে বলা হয়, ওই কিশোরীর বাড়ি ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যে। সেখান থেকে রাজধানী দিল্লিতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করার জন্য নিয়ে আসে স্থানীয় এক ব্যক্তি। যে ব্যক্তি তাকে দিল্লিতে নিয়ে এসেছিল সেই তার হত্যাকারী। কিশোরীর মৃতদেহ খুঁজে পাওয়ার পর পুলিশ মিয়ানওয়ালি নগর ও তার আশপাশের প্রায় ২০০ বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে।

তাদের কাছে তথ্য ছিল যে, সেখানকার এক ভাড়াটে, ঝাড়খণ্ডের নাগরিককে ওই কিশোরীর খুন হওয়ার পর থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে ধরার জন্য ঝাড়খণ্ডে তার গ্রামে অভিযান চালানো হয়। তবে সেখানে তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে পুলিশের কাছে তথ্য আসে ১৭ মে ওই ব্যক্তি দিল্লিতে তার ভাড়া বাসায় ফেরত আসতে পারে। এ তথ্যের ওপর ভিত্তি করে ফাঁদ পেতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ওই হত্যাকারীর নাম মানজিত কারকেটা।

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে, আরো দুই ব্যক্তির সহায়তায় ওই কিশোরীকে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছেন কারকেটা। সহায়তাকারী দু’জনের একজন হচ্ছেন এক নারী। তিনি আরো স্বীকার করেন, তারা তিনজন মিলে ঝাড়খণ্ডের দরিদ্র পরিবারের কম বয়সী ছেলে-মেয়েদের দিল্লিতে ভালো চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিয়ে আসতেন।

তারা ওই কিশোরীকে দিল্লিতে নিয়ে এসেছিল আরো তিন বছর আগে। তাকে একটি গৃহকর্মীর কাজও জুটিয়ে দিয়েছিলেন। তবে তার বেতন সংগ্রহ করতো অভিযুক্ত তিনজনই। ওই কিশোরীকে কোন বেতন পরিশোধ করা হত না।

পুলিশ জানিয়েছে, এভাবে এক বছর চলার পর ওই কিশোরী গৃহকর্মীর কাজ ছেড়ে দেন ও মে মাসের ৩ তারিখ কারকেটার সঙ্গে দেখা করেন। তখনই কারকেটা ও তার সহযোগীরা নৃশংসভাবে তাকে হত্যা করেন। তারা কিশোরীর দেহটিকে কুপিয়ে তিন ভাগে ভাগ করে একটি নর্দমায় ফেলে দেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: