সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা বলে তরুণীকে গণধর্ষণ

নিউজ ডেস্ক:: শেরপুরে নালিতাবাড়ীতে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক তরুণী। এ ঘটনায় দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- নালিতাবাড়ী উপজেলার গোবিন্দনগর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে আল-আমিন (৩৫) ও ছৈমদ্দিন মিয়ার ছেলে আব্দুল জলিল শাহীন মিয়া (২২)।

এ ঘটনায় ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সোমবার শেরপুর জেলা হাসপাতালের‘ওয়ান স্টপ ক্রাইসি সেন্টারে’ভর্তি করা হয়েছে। সোহাগ মিয়া নামে আরেক ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

পুলিশ জানায়, শনিবার সন্ধ্যায় ওই তরুণী নালিতাবাড়ীর নামা ছিটপাড়া এলাকার নানীর বাড়ি থেকে নিজবাড়িতে যাচ্ছিলেন। এ সময় ওই তরুণীকে একা যেতে দেখে গোবিন্দনগর গ্রামের পূর্বপরিচিত আলামিন মিয়া বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে তাকে একটি রিকসায় তুলে নেয়। সরল মনে ওই তরুণী তার সঙ্গে রিকসায় ওঠে বাড়ি রওনা দেয়। পরবর্তীতে মোটরসাইকেলে করে আল-আমিনের সহযোগী আরও দুই যুবক তাদের রিকসার পিছু নেয়। তরুণীকে বহনকারী রিকসাটি তিনানী পাড়া এলাকার ভোগাই নদীর পাড়ের পৌঁছালে সেখানে একটি বাঁশঝাড়ের জঙ্গলে নিয়ে জোরপূর্ব্বক ওই তিন যুবক তরুণীকে গণধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়। পরে তার চিৎকারে স্থানীয়রা ওই তরুণীকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌঁছে দেয়। রোববার এ ঘটনায় নালিতাবাড়ী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আল-আমিন ও শাহীন মিয়াকে গ্রেফতার করে।

নালিতাবাড়ী থানার ওসি মো. ফসিহুর রহমান জানান, তরুণী গণধর্ষণের ঘটনায় দুই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আরও এক ধর্ষককে ধরতে অভিযান চলছে। ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: