সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ৩১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাশিয়ায় সাড়া ফেলেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রিতা

full_172834528_1462805307প্রবাস ডেস্ক:
গতকাল রোববার অনুষ্ঠিত বর্ন গ্র্যান্ড প্রিক্স ফাইনাল সিরিজে প্রথম হয়েছেন রুশ রিদমিক জিমন্যাস্টিক মার্গারিটা মামুন (রিতা)। মার্গারিটা এবারের আসরে টার্ট-কাপ এবং জিপি বর্নে সোনা ও সিলভার জিতেন। তিনি ১৯.৪৫০ স্কোর করে এবারের আসরে প্রথম হয়েছেন যা ২০১৩-১৬ স্কোরিং সিস্টেমের অধীনে সর্বোচ্চ স্কোর। এছাড়া বর্ন গ্র্যান্ড প্রিক্সে সর্বোচ্চ ‘অল অ্যারাউন্ড’ স্কোরও তার দখলে।

বিশ্ব মিডিয়ায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই রুশ তরুণী ‘বাংলার বাঘিনী’ নামে পরিচিত। কারণ, শিকড় তার বাংলাদেশে। মস্কোতে জন্ম নেওয়া রিতার বাবা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল মামুন এবং মা রাশিয়ান বংশোদ্ভূত অ্যানা একজন পেশাদার রিদমিক জিমন্যাস্টিক ছিলেন। তাই ছোটবেলা থেকেই জিমন্যাস্টিকস চর্চা চালিয়ে গেছেন রিতা। সপরিবারে রাশিয়ার মস্কোতে বসবাসকারী রিতার বাবা রাজশাহীর ছেলে।

বর্ন গ্র্যান্ড প্রিক্স ২০১৬ আসরে রিবন ফাইনাল সিরিজে প্রথম (১৯.৪৫০) হয়েছেন মার্গারিটা মামুন। এছাড়া বর্ন গ্র্যান্ড প্রিক্সের ক্লাব ফাইনালেও ১৮.৯৫০ স্কোর করে প্রথম হয়েছেন মার্গারিটা মামুন। তিনি এই আসরে হুপ ফাইনালে সোনা এবং বল ফাইনালে সিলভার জিতেন।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে রাশিয়ার বিখ্যাত ক্রীড়া ম্যাগাজিন ইউরো স্পোর্টের প্রচ্ছদে হঠাৎ উঠে আসেন অচেনা এক তরুণী, নাম মার্গারিটা মামুন। রাশিয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্ব গণমাধ্যমেও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে তার নাম। এরপর থেকে তিনি একে একে অর্জন করেছেন সব বিশ্ব রেকর্ড। সোনা, ব্রোঞ্জসহ অনেকবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। মূলত ২০১১ সাল থেকেই সাফল্য ধরা দিতে শুরু করে মার্গারিটার হাতে। সে বছর মন্ট্রিল ওয়ার্ল্ড কাপে অংশ নিয়ে ১০৬.৯২৫ পয়েন্ট পেয়ে অল অ্যারাউন্ডে ব্রোঞ্জ পদক পান মার্গারিটার। আর বল ফাইনালে ২৭.০২৫ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম স্থান অধিকার করে জিতে নেন স্বর্ণপদক।

ওই বছর রাশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে হুপ ও বলে অল অ্যারাউন্ড চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মধ্য দিয়ে জাতীয় দলে ডাক পড়ে তার। ২০১৩ সালের ওয়ার্ল্ড কাপ ফাইনালে ‘অল অ্যারাউন্ড’ চ্যাম্পিয়ন হন। ২০১৩ সালে ওয়ার্ল্ড র্যাাঙ্কিংয়ের ১ নম্বরে চলে আসেন তিনি। মস্কো গ্র্যান্ড প্রিক্সে স্বর্ণ জিতেন।

এরপর কাজান ইউনিভার্সিটি, সেন্ট পিটার্সবার্গ ওয়ার্ল্ড কাপ ফাইনাল, ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ এবং ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের মতো বড় ক্রীড়া ইভেন্টেও মার্গারিটা তার যোগ্যতার প্রমাণ রেখেছেন। মার্গারিটা রিদমিক জিমন্যাস্টিকসের ২০১৪ সালের ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে সব মিলিয়ে সিলভার মেডেলিস্ট হয়েছেন।

সব মিলিয়ে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূতরিদমিক জিমন্যাস্টিক এই রুশ তরুণী বিদেশের মাটিতে নিজেকে এবং বাংলাদেশকে এক নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। বাংলাদেশে জিমন্যাস্টিকের প্রসারে এই খেলোয়াড় সবার প্রেরণার উৎস হতে পারেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: