সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ২৪ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মা দিবসে মা’কে বাঁচানোর একটি সত্যি ঘটনা

52নিউজ ডেস্ক: আজ মা দিবস বা মাদার্স ডে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই বিশেষ দিনটায় সবাই কেমন যেন আবেগের ঘোরে পড়ে গেছেন। বলিউড সেলিব্রিটি থেকে আমজনতা। সবাই তাদের মা’কে নিয়ে নানা কথা শেয়ার করছেন। আজ এমন একটা দিনে, আসুন ১০ বছরের একটি ছেলের গল্প শুনি।

সালটা ১৯৮৮। ঘটনাটি ঘটেছিলো জর্জিয়ায়। ১০ বছরের ছোট্ট ম্যাক জনসন ঘুমোতে যাবে বলে মা’কে ডাকলো। কিন্তু মা’র ঘর থেকে একটা চিত্‍কার শুনে জনসন ছুটে গেলো। জনসন দেখলো মুখোশ পরে একটা লোক তার মা’কে ছুরি দিয়ে মারতে যাচ্ছে, আর মা ভয়ে পালাচ্ছে। জনসন ছুটে গেল মুখোশ পরা লোকটার দিকে। লোকটা জনসনকে আক্রমণ করলো। ছুরির আঘাতে রক্তাক্ত জনসন পড়ে গেলো মেঝেতে। লোকটা এবার জনসনের মা’কে মারতে এগিয়ে গেলো।

জনসন উঠে দাঁড়িয়ে ছোট হাতে লোকটার পা’টা পিছন দিকে টেনে ধরে ছুরিটা ছিনিয়ে নিলো। এবার সেই ছুরিটা নিয়ে পরপর ৯ বার মুখোশ পরা লোকটাকে আঘাত করলো। লোকটা চিত্‍কার করে মেঝেতে শুয়ে পড়লো। জনসন ফোন করলো পুলিশে। লোকটা গুরুতর আহত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে থাকলো। পুলিশ এসে যখন লোকটার মুখোশ খুললো, দেখলো মুখোশ পরা লোকটা আর কেউ নয়, জনসনের বাবা। ঘটনাটা ঘটেছিলো জর্জিয়ায়। জনসনকে সাহসিকতার জন্য বিশেষ পুরস্কার দেয়া হয়। জনসনের বাবা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের জেরে খুনটা করতে চেয়েছিলো। এই ঘটনাটা নিয়ে সিনেমাও তৈরি হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: