সর্বশেষ আপডেট : ৬ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ফেসবুকে প্রচারণা ছাড়া কাজ নেই ছাত্রলীগের!

chhatraleague-facebook-lrg20160505195538

নিউজ ডেস্ক::
১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত দেশ ও জনগণের স্বার্থ রক্ষার্থে প্রত্যেকটি আন্দোলনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ভূমিকা অবিস্মরণীয়। ইতিহাস গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যে মণ্ডিত এ ছাত্র সংগঠনটি দেশের সংকটকালীন মুহূর্তে সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে পাশে দাঁড়িয়ে নজির স্থাপন করেছে।

তবে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলো নিষ্ক্রিয় থাকায় প্রাচীন এ সংগঠনটির সাংগঠনিক কার্যক্রম যেন সীমিত হয়ে আসছে। উল্লেখযোগ্য কাজ না থাকায় ছাত্রলীগের বেশিরভাগ নেতা এখন ফেসবুকে ব্যক্তিগত ও অনুগত নেতার প্রচার প্রচারণাতেই সময় পার করছেন।

1
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সর্বশেষ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এমন প্রচারণা যেন ক্রমেই তীব্র হয়ে উঠছে। অনুগত নেতার গুণগান আর নানা অভিব্যক্তি প্রকাশই যেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মুখ্যবিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ছাত্রলীগের সর্বশেষ কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, বর্তমান কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির জাকির হোসাইনের ছবি পোস্ট করে নানা প্রশংসামূলক অভিব্যক্তি দিয়ে কয়েক হাজার নেতাকর্মী তাদের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। অনেক নেতাকর্মী এখনো এ ধারা অব্যাহতও রেখেছেন। অনেকে আবার প্রিয় নেতার সঙ্গে একান্ত মুহূর্তের ছবিগুলো ফেসবুকে পোস্ট করে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

2
এদিকে, দেশের প্রধান বিরোধী শক্তি জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দীর্ঘদিন ধরে অনুপস্থিত। ক্যাম্পাসে বাম সংগঠনগুলো বিভিন্ন ইস্যুতে ছোটখাট কর্মসূচি পালন করলেও এসব নিয়ে মাথাব্যাথা নেই ছাত্রলীগের। শক্তিশালী বিরোধী প্রতিপক্ষ না থাকায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করেন ছাত্রলীগের সাবেক কয়েকজন নেতা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারা বলেন, কল্যাণমূলক কাজে ছাত্রলীগকে বেশি মনোযোগী হতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যেভাবে এগিয়ে চলছে এই ধারায় ছাত্রলীগকেও শিক্ষা ও শিক্ষার্থীদের উন্নয়নে নানা কল্যাণমূলক কাজের মাধ্যমে সরকারকে সহযোগিতা করতে হবে।

3
১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ১৯৬২ এর শিক্ষা কমিশন আন্দোলন, ১৯৬৬ সালের ছয় দফা আন্দোলন, ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থান এবং এগারো দফা আন্দোলন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধসহ বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় স্বাধীকার আন্দোলনে অংশগ্রহণ করা সংগঠনটিকে তাদের অতীতের ঐতিহাসিক কাজগুলোর ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে বলেও মত দিয়েছেন নাম প্রকাশ না করার শর্তে সর্বশেষ কমিটির কয়েকজন ছাত্র নেতা।

এদিকে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ফেসবুকে অতি প্রচারণায় বিরক্ত হয়ে সম্পতি নিজের ফেসবুকে নির্দেশনামূলক স্ট্যাটাস দিয়েছেন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন। তিনি তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘সালাম ও শুভেচ্ছা জানবেন। সম্প্রতি খেয়াল করলাম, আপনাদের অনেকেই আমাকে সাধারণ মানুষের কাতারের একজন না ভেবে অসাধারণ কাতারের মানুষ ভাবতে শুরু করেছেন। যা আমার জন্য বিব্রতকর।

4
আপনাদের মনে রাখতে হবে, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আমি কেবল দেশরত্ন শেখ হাসিনার পক্ষে ছাত্রসমাজের সঙ্গে সংযোগরক্ষাকারী সমন্বয়ক মাত্র। সারাদেশের ছাত্রছাত্রীদেরকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বলিয়ান হয়ে সুস্থ ও স্বাভাবিক শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠার পরিবেশ নিশ্চিত করাই আমার কাজ। আমার এই পদটি ক্ষমতার কোন আধার নয়, দায়িত্ব মাত্র।

তাই, আপনারা যারা আমাকে ভালোবাসেন তারা আবেগের আতিশয্যে কোনোভাবেই নিজেদের থেকে আমাকে আলাদা একজন ভাববেন না। সারাজীবন আপনাদেরই একজন হয়ে থাকতে চাই। বর্তমান বিশ্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অত্যন্ত শক্তিশালী প্রচার মাধ্যম হিসেবে স্বীকৃত। এখানে ব্যক্তি প্রচারণাকে পরিহার করে আমাদের সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে তুলে ধরুণ এবং ইতিহাসের সত্যাসত্য নিয়ে আলোচনা করুন। তবেই আপনারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মী হিসেবে গর্ব করতে পারবেন।

5
তথ্যপ্রযুক্তি পৃথিবীকে মানুষের হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে। যে মানুষটির বদৌলতে বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তির এতো অবাধ ব্যবহারের সুযোগ আমরা পেয়েছি আপনারা সেই মেধাবী মানুষ তরুণ প্রজন্মের আপনজন সজীব ওয়াজেদ জয় ভাইকে অনুসরণ করুন।

6
আমি বিশ্বাস করি আপনারা আমাকে সত্যিকারভাবেই ভালোবাসেন। এজন্যই মনেপ্রাণে চাই এই ভালোবাসার পথচলা নিরন্তর থাকুক, হাস্যস্পদ না হোক। রাজপথকে না ভুলে, ক্লাস-পরীক্ষা ফাঁকি না দিয়ে এবং ফেসবুকে নির্ভর রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অতিরিক্ত মাত্রায় সম্পৃক্ত না থেকে সত্যিকারের একজন রাজনৈতিক মানুষ হিসেবে আপনারা নিজেদের গড়ে তুলতে পারলে তবেই আমার প্রতি আপনাদের নিষ্কলুষ ভালোবাসার সুবিচার হবে বলে আমি মনে করি।

7

সবশেষে কবির ভাষায় বলতে চাই, মোর নাম এই বলে খ্যাত হোক, আমি তোমাদেরই লোক।’’

সূত্র: জাগো নিউজ

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: