সর্বশেষ আপডেট : ১১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আটকে রেখে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ: ৭ দিন পর উদ্ধার

2. daily sylhet dhorshonনিউজ ডেস্ক: নোয়াখালীর সুধারামের চরমটুয়া ইউনিয়নের নেয়াজের ডিগি গ্রামে আলী উল্যার স্কুল পড়ুয়া ১০ম শ্রেণির ছাত্রী (১৫) কে অপহরণের ৭দিন পর শনিবার সুধারাম থানা পুলিশ শরিয়তপুর থেকে উদ্ধার করেছে। শনিবার নিজ এলাকা থেকে মাইজদী হাসপাতালে আসার পথে পার্শ্ববর্তী হুগলী গ্রামের সুজন নামের বখাটে যুবক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে শরীয়তপুর জেলায় নিয়ে যায় এবং সেখানে তার এক আত্মীয় বাড়িতে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ঘটনাটি জানা জানি হয়ে গেলে ৭ দিন পর তাকে উদ্ধার করে। ভিকটিম চরমটুয়া পানামিয়া টি.এস উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী বলে জানা যায়। ভিকটিমের স্বজন শিহাব উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। অপরদিকে, সুধারামের নেয়াজপুর ইউনিয়নের বেলানগর গ্রামের গোলাম সাত্তারের মেয়ে এক কলেজ ছাত্রী (২১) কে একই এলাকার মো: মিশু নামের এক যুবক অপহরণ করে মাইজদী সাতানী পুকুর পাড় এলাকার এক বাসায় আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ভিকটিম কৌশলে ছুটে এসে শনিবার বিকালে সুধারাম থানায় বিরুদ্ধে তার বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা করে। দুই ভিকটিমকে বিকালে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে মেডিকেল করা হয়েছে। সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আনোয়ার হোসেন ঘটনা সত্যতা স্বীকার বলেন, দু’ছাত্রীকে সুধারাম থানা পুলিশ উদ্ধার করেছে এবং অপহরণ মামলা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: