সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ১৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাজনগরে আচরণবিধি লঙ্ঘনের প্রতিযোগিতা

01.-daily-sylhet-UP-ect11রাজনগর প্রতিনিধি::
রাজনগরে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের প্রতিযোগিতা চলছে। কোনো ধরনের তদারকি না থাকা ও প্রশাসন চোখ বুঝে থাকায় প্রার্থীরাও বেপরওয়া হয়ে উঠেছেন। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের চেয়ে যেন এক পা এগিয়ে আচরণবিধি লঙ্ঘনে।

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হবে ৭ই মে। ওই তারিখে রাজনগর উপজেলার ৮ ইউনিয়নের ৩১ জন চেয়ারম্যান, ৭৩ জন নারী সদস্য ও ৩১০ জন সাধারন সদস্যের ভাগ্য নির্ধারিত হবে। প্রত্যাহার ও প্রতীক বরাদ্দ শেষে গত ২০শে এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে প্রচার-প্রচারণা। শুরু থেকেই উপজেলার চেয়ারম্যান ও সদস্যরা আচরণ বিধি লঙ্ঘনের মহোৎসব চালিয়ে যাচ্ছেন। দেয়ালে দেয়ালে পোস্টার সাঠানো, মোটরসাইকেল শোডাউন, মিছিল, একের অধিক গাড়ি, মাইক ব্যবহারের পাশাপাশি ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে খোলা ট্রাকে শিশুদের দিয়ে মোটর শুভাযাত্রা-মিছিল দিচ্ছেন। এতে ট্রাক থেকে যে কোন সময় শিশুদের পড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সচেতন মানুষজন। এছাড়াও উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে প্রার্থীরা একের অধিক মাইক ও গাড়ি ব্যবহার করে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

গতকাল দুপুর থেকে ৩টি ট্রাকে করে শিশু-যুবকদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নামেন সদর ইউপির ৭ নম্বর ওয়ার্ডের এক প্রার্থী। এর আগে গত বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে রাজনগর সদর ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্য প্রার্থী তিনটি ট্রাকে করে প্রচারণা চালান। প্রতিটি ট্রাকে মাইকের পাশাপাশি ৮-১০ বছরের শিশুরা ট্রাকে করে নেছে গেয়ে মিছিল করছে। রাজনগর বাজারের ব্যবসায়ী দেওয়ান মুজতবা মজিদ বলেন, এই শিশুরা এখনো ভোটারইতো হয়নি। ঝুকিপূর্ণ ভাবে এদের দিয়ে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এতে যে কোন সময় বড়ধরনের দূর্ঘটনাও ঘটতে পারে।

সম্প্রতি রাজনগরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে উপজেলার আট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নিয়ে সভা করেন জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান। নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্গন করে সভায় আসা প্রার্থীরা মোটরসাইকেল শোডাউন, গাড়ি শোভাযাত্রানিয়ে ভায় আসেন। এসময় বিএনপি প্রার্থী ও বিভিন্ন প্রার্থীরা আচরণ বিধি না মানার জন্য প্রশাসনের লোকজনের প্রতি ক্ষোভ ঝাড়ের সচেতন মানুষ জন। আচরণ বিধি না মানায় এগিয়ে আছেন সরকারদলীয় নেতা কর্মীরা। দুপুর থেকে শুরু করে রাত ১০ টার পরেও কোথাও কোথাও প্রাচারণা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী নির্বাচন কর্মকর্তা বাবলু সুত্রধর বলেন, নির্বাচনি আচরণ বিধি লঙ্গণের বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার হমোদয় দেখবেন। ইউএনও স্যারের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে উনি দু’একদিনের মধ্যে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: