সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাড়িতে যেসব গন্ধ পেলে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন

24লা্ইফ স্টাইল ডেস্ক :: বিভিন্ন বুনো প্রাণীর মতো অতটা তীক্ষ্ণ না হলেও মানুষের, বিশেষ করে নারীদের ঘ্রাণশক্তি কিন্তু অনেক তীক্ষ্ণ। প্রাচীন কাল থেকে আমাদের নিরাপদে রাখার জন্য অন্যান্য ইন্দ্রিয়ের পাশাপাশি আমাদের নাক কাজ করে যাচ্ছে। এই আধুনিক জীবনেও কিন্তু আপনাকে সুস্থ ও নিরাপদ রাখতে কাজ করতে পারে এই নাক। অনেক সময় আপনার নিজের বাড়িতেই বিপদ দেখা দেয়, সেই বিপদ নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাবার আগেই আপনি ঘ্রাণ থেকে বুঝে নিতে পারেন। চলুন দেখে নেই, বাড়িতে কী কী গন্ধ পেলে আপনার সতর্ক হয়ে যাওয়া উচিৎ।

১) গ্যাসের গন্ধ
বাড়িতে গ্যাসের চুলা আছে সবারই। আর গ্যাসের চুলো লিক করে প্রায়ই মারাত্মক সব দুর্ঘটনা ঘটার খব্র পাই আমরা। নিজের নাম এমন একটি খবরের শিরোনামে দেখতে না চাইলে আপনি সতর্ক থাকুন। গ্যাসের গন্ধ পেলেই ঘর থেকে বের হয়ে পড়ুন এবং গ্যাস কোম্পানিকে ব্যাপারটা জানান। গ্যাসের পাইপে লিক থাকতে পারে। নিজের বাড়িতে বসে ল্যান্ডফোন ব্যবহার করবেন না। এর পাশাপাশি ফ্যান ছাড়া, লাইট বা ইলেকট্রনিকস অন-অফ করা বা বাড়ির গ্যারেজ থেকে গাড়ি চালানোর কাজগুলো করবেন না। কারণ এসব কাজের মাধ্যমে স্পার্ক তৈরি হয়ে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে।

২) ভ্যাপসা গন্ধ
ভ্যাপসা, স্যাঁতস্যাঁতে দুর্গন্ধের অর্থ হতে পারে সিঙ্ক অথবা পাইপের কোথাও ফাটা অথবা লিক তৈরি হয়েছে, যার ফলে পানি জমে শ্যাওলা পড়েছে। বাড়িতে অ্যাজমা অথবা অ্যালার্জির রোগী থাকলে তার জন্য এটা খুবই অস্বাস্থ্যকর। শ্যাওলা শনাক্ত করতে পারলে ব্লিচ এবং পানির মিশ্রণ দিয়ে জায়গাটা ভালো করে ধুয়ে ফেলতে হবে।

৩) টয়লেটের বাজে দুর্গন্ধ
আপনার বাসা যদি পাবলিক টয়লেটের মতো কটু দুর্গন্ধে ভরে থাকে তাহলে চিন্তিত হবারই কথা। এর কারণ হতে পারে সিউয়ার গ্যাসের লিক। এতে বিভিন্ন ক্ষতিকর গ্যাস থাকে। সাধারণত বাড়িতে কোনো বাথরুম অব্যবহৃত থাকলে সেটা থেকে এই গ্যাসের লিক হতে পারে। তবে আপনি যদি এর উৎস খুঁজে না পান তাহলে মিস্ত্রী ডাকিয়ে সমস্যার সমাধান করে ফেলাই ভালো।

৪) ধোঁয়ার গন্ধ, পোড়া গন্ধ
খাবার পোড়ার গন্ধের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। কিন্তু অল্প অল্প ধোঁয়ার গন্ধ, বা কোনো কিছু পোড়ার একদম সূক্ষ্ম গন্ধকে আমরা খুব একটা আমলে আনি না। একটু খেয়াল করে দেখুন, বিশেষ কোনো ইলেকট্রনিক্স চালানোর সময়ে, যেমন ফোন চার্জ দেবার সময়ে বা ফ্যান ছাড়ার সময়ে যদি এই গন্ধ পান তাহলে তা খুব বিপজ্জনক হতে পারে। কারণ এটা প্লাস্টিক পোড়া গন্ধ হতে পারে। খুব দ্রুত ইলেক্ট্রিশিয়ান ডেকে সমস্যার সমাধান করুন।

৫) ভেজা লোমের গন্ধ
এই গন্ধটা অপরিচিত মনে হতে পারে। রাস্তার কুকুর-বিড়ালের শরীরের গন্ধ, অথবা গরু-ছাগলের গন্ধ যেমন হয় তেমন গন্ধ যদি বাসায় থাকে, অথচ আপনার কোনো পোষা প্রাণী নেই তাহলে খটকা লাগতেই পারে। এর কারণ হতে পারে ধাড়ি ইঁদুর অথবা বুনো বিড়াল। এগুলো হয়তো আপনার অজান্তেই ঘরে ঢুকে পড়ছে এবং খাবার খুঁজে বেড়াচ্ছে, আপনি জানেনও না। এমন গন্ধ পেলে ভালো করে আনাচে কানাচে খুঁজে দেখুন। কোনো প্রাণী পেলে তাকে তাড়ানোর ব্যবস্থা করুন।

৬) বাসি সিগারেটের গন্ধ
দুই ধরণের সিগারেটের ক্ষতি থেকে আমাদেরকে সাবধান থাকতে বলা হয়। এক হলো নিজে ধূমপান করা, আরেক হলো ধূমপায়ীর কাছে থাকা। এই দুইটি কাজেই অসুস্থ হবার ঝুঁকি থাকে। কিন্তু আরও এক ধরণের ক্ষতি আছে। একটি ঘরে কেউ ধূমপান করে গেলে সেখানে যদি বাসি ধোঁয়া থেকে যায় সেটাও ক্ষতিকর। ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্রের ওপরে থেকে যায় সেই ধোঁয়ার অবশিষ্টাংশ, সেটাও আপনার জন্য ক্ষতিকর। এ কারণে আপনার বাড়িতে কেউ ধূমপান করে গেলে সেই রুম পরে ভালো করে পরিষ্কার করে নিন।

৭) রঙের গন্ধ
ঘরের দেয়াল রং করা হলে একটা নতুন নতুন গন্ধ থাকে। এই গন্ধটাকে অনেকে পছন্দ করলেও এতে অনেক রকমের রাসায়নিক থাকে যা আপনার জন্য ক্ষতিকর।

নিজের বাড়িতে এসব গন্ধ ছাড়াও, আপনি যদি বাসা ভাড়া নিতে বা কিনতে যান, তাহলে এসব গন্ধের ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। আপনি যদি দেখেন সারা ঘরে শুধু সুগন্ধি মোমবাতি, ধূপ অথবা এয়ার ফ্রেশনারের গন্ধ তাহলে খুশি হবেন না। কারণ হয়তো সেই ঘরে কোনো একটা দুর্গন্ধ আছে যা এসব সুগন্ধের সাহায্যে ঢাকার চেষ্টা হচ্ছে। ঘরের বাইরে গিয়েও গন্ধ নিন। আশপাশে ডাস্টবিনের দুর্গন্ধ আছে কিনা চেক করুন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: