সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সোনিয়া গান্ধীকে গ্রেপ্তারের সাহস দেখান, বিজেপিকে কেজরিওয়াল

11957_arvind-kejriwalডেইলি সিলেট ডেস্ক::
ভারতে আলোচিত অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ড হেলিকপ্টার ক্রয়ে ৩৬০০ কোটি টাকার কেলেঙ্কারি নতুন মোড় নিয়েছে। শাসকদল বিজেপির প্রতি কটাক্ষ করে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির প্রধান অরভিন্দ কেজরিওয়াল বলেছেন, পারলে সরকার এ ঘটনায় জড়িত কগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও তার দলের অন্য নেতাদের গ্রেপ্তার করে দেখাক। তিনি এ ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নীরবতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। তার আরও প্রশ্ন, এ ঘটনায় কেন এখনও সন্দেহভাজন কংগ্রেস নেতাদের বাসায় সিবিআই অভিযান চালায়নি? এ খবর দিয়েছে এনডিটিভি। বৃহ¯পতিবার সন্ধ্যায় এক টুইটে কেজরিওয়াল বলেন, ‘ইতালির আদালতে সোনিয়া গান্ধী ও অন্য কংগ্রেস নেতাদের জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেয়া হয়েছে। আমি বিজেপিকে বলছি, পারলে এদের গ্রেপ্তার করার সাহস দেখান।’ পরে আরেক টুইটে তিনি নিজেই বলেন, ‘বিজেপি এটা কখনও করবে না। তাদের উদ্দেশ্য খারাপ। গত পাঁচ বছরে বিজেপি কেবল রাজনৈতিক বাগাড়ম্বরই করেছে। আসলে বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে শক্ত স¤পর্ক রয়েছে।’

ভারতের পার্লামেন্টে এই অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ড কেলেঙ্কারি নিয়ে ব্যাপক হুলস্থুল চলছে। এ নিয়ে আগেও মন্তব্য করেছেন কেজরিওয়াল। তবে এবারই প্রথম সরাসরি কংগ্রেসনেত্রী সোনিয়া গান্ধির নাম উল্লেখ করলেন তিনি। এর আগে বৃহ¯পতিবার, আম আদমি পার্টির এ নেতা প্রশ্ন তুলেছিলেন, ইতালির আদালতে যাদের নাম এসেছে তাদের কেন অবিলম্বে আটক বা জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে না? তার ভাষায়, ‘প্রধানমন্ত্রী কেন এ ইস্যুতে নীরব? বিজেপি প্রথমে ভদ্রকে (সোনিয়া গান্ধীর মেয়ের জামায় রবার্ট ভদ্র) এ কেলেঙ্কারি থেকে নিস্তার দিয়েছে। এখন তারা পুরো কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বকে রক্ষা করছে।’ তিনি বলেন, ‘আমার ব্যাপারে সিবিআই অভিযান চালিয়েছে। এখন কেন ওই কংগ্রেস নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে না?’

প্রসঙ্গত, গত বছরের ডিসেম্বরে কথিত এক দুর্নীতি মামলায় কেজরিওয়ালের মূখ্যসচিব রাজেন্দ্র কুমারের কার্যালয়ে সিবিআই অভিযান চালায়। এরপর থেকেই দিল্লি সচিবালয়ে সিবিআই’র ওই অভিযানের পেছনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত থাকার অভিযোগ করে আসছেন কেজরিওয়াল।

অপরদিকে রাষ্ট্রের অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি বা অতিথিদের (ভিভিআইপি) জন্য ১২টি হেলিকপ্টার ক্রয়ের বিতর্কিত একটি চুক্তি ও এর জন্য কথিত ঘুষ লেনদেনের বিষয়টি নতুন করে ঝড় তুলেছে ভারতের রাজনীতিতে। ইতালির একটি আদালতের একটি রায়ে এ ঘটনায় কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী, তার রাজনৈতিক সচিব আহমেদ প্যাটেল ও সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান এসপি ত্যাগীর কাছে এক দালালের হাতে লেখা একটি রেফারেন্সের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এ মামলায় ইতিমধ্যেই অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ডের প্রধান নির্বাহীকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: