সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়েছি’

11951_shamima-tustyবিনোদন ডেস্ক:
খুব ছোটবেলা থেকে অভিনয়ের সঙ্গে সখ্য জনপ্রিয় অভিনেত্রী শামীমা তুষ্টির। মঞ্চেই কাজ শুরু করেছিলেন। সেখানে যে যাত্রা শুরু হয় এখনও পর্যন্ত তা চলছে। তবে এখন আর মঞ্চে নয়। টিভিপর্দায় সরব তুষ্টি। এরই মধ্যে অভিজ্ঞ কয়েকজন অভিনেত্রীর তালিকায়ও নিজেকে দাঁড় করিয়েছেন। নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও রয়েছে তার বিচরণ।

বর্তমানে একাধিক ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন তুষ্টি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- ‘অলসপুর’, ‘আলাল দুলাল’, ‘নন স্টপ’, ‘লেক ড্রাইভ লেন’, ‘মায়ার খেলা’, ‘স্বর্নলতা’, ‘এক চিলতে পাখি’, ‘নীড় খোঁজে গাঙচিল’, ‘টিপু সুলতান’, ‘প্রহেলিকা’,ও ‘একি কান্ড’। সম্প্রতি তুষ্টি অভিনীত বিবিসি অ্যাকশান মিডিয়ার প্রযোজনায় ‘উজান গাঙের নাইয়া’ ধারাবাহিক নাটকটির তৃতীয় সিরিজের প্রচার শেষ হয়েছে। এ নাটক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জনসচেতনতামূলক নাটক হলেও বেশ দারুণ একটি কাজ ছিল এটি। বলতে পারি আমার ক্যারিয়ারে উল্লেখযোগ্য কাজগুলোর একটি। একটি নাটকে কাজ করতে গেলে ইউনিটটা কেমন সেটা আগে দেখতে হয়। উজান গাঙের নাইয়া’য় অভিনয় করতে গিয়ে শুটিং ইউনিট নিয়ে আমাকে ভাবতে হয়নি।

কারণ জানি বিবিসির কাজ কখনোই খারাপ হতে পারে না। সবমিলিয়ে বলবো একটা দারুণ অভিজ্ঞতা হয়েছে এ নাটকে কাজ করতে গিয়ে। আশা করি বিবিসির সঙ্গে আরও আরও কাজ হবে। একজন অভিনেত্রী হিসেবে সব ধরনের নাটকেই অভিনয় করেন তুষ্টি। খন্ড কিংবা ধারাবাহিকের মধ্যে তেমন কোনো পছন্দ নেই তার। তবে সারা বছর ধারাবাহিকে কাজ করেন বলে খন্ড নাটকের প্রতি বরাবরই আলাদা গুরুত্ব থাকে বলেও উল্লেখ করেন তুষ্টি।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, একজন অভিনয় শিল্পী হিসেবে সব ধরনের নাটকেই অভিনয় করতে হয়। খন্ড বা ধারাবাহিক তেমন বিশেষ কোন পছন্দের জায়গা নেই। তবে একখন্ডের নাটকের প্রতি সবসময় আলাদা গুরুত্ব থাকে। কারণ ধারাবাহিক তো সারা বছরই করা হয়। খন্ড নাটক কাজ কম করি। অভিনয়ের সঙ্গে তুষ্টির দীর্ঘদিনের পথচলা। সেসূত্রে এ যাবৎ অর্জন করেছেন অনেক অভিজ্ঞতাই। সেটার আলোকে বর্তমান সময়ের নাটক নিয়ে তুষ্টি বলেন, আসলে নাটকের মান নিয়ে কথা বলার জন্য অনেক অভিজ্ঞ মানুষ আছেন। তারা আমার চেয়ে ভালো বলতে পারবেন। আমি না হয় এ বিষয়ে কথা না বলি। তবে এটা ঠিক যে অতিমাত্রায় বিজ্ঞাপনের কারণে দর্শক বিদেশী চ্যানেলে ঝুঁকছেন। সে সঙ্গে নাটকের মানও খারাপের দিকে যাচ্ছে। এর কারণ আমার কাছে বাজেট একটা সমস্যা বলে মনে হয়।

তবে আমাদের নাটকের হারানো ঐতিহ্য ফিরে আসবে এমনটাই বিশ্বাস আমার। দুর্দিন তো সবসময় থাকে না। সুদিন অবশ্যই ফিরে আসবে। অভিনয়ের পাশপাশি শিক্ষকতা করছেন তুষ্টি। রাজধানীর বিএএফ শাহীন স্কুলে অনেকদিন ধরেই এ পেশায় নিয়জিত রয়েছেন। পাশাপাশি দেশের কল্যাণে, দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে নাম লিখিয়েছেন রাজনীতিতেও। গত বছর ‘ইয়াং অ্যাকটিভ’ নামের একটি রাজনৈতিক দলের কাজ শুরু করেছেন তুষ্টি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অভিনয় কিংবা শিক্ষকতা আমার নিজের পরিচয় বহন করে। সেখানে আমি নিজের সম্মানবোধ খুঁজে পাই। দর্শক আমার অভিনয় দেখে আমাকে ভালোবাসেন।

একইভাবে আমার কলেজের শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা আমাকে আমার কাজের জন্য যথেষ্ট সম্মান করেন। এ সম্মান এবং ভালোবাসার জায়গাটার ব্যাপ্তি আরও বাড়াতে, দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়েছি। আর আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। সে জায়গা থেকেও আমার দেশের প্রতি দেশের মানুষের প্রতি কিছু দায়িত্ব রয়েছে। আশা করি শুভাকাঙ্খীরা আমার পাশে থাকবেন, আমাকে সহযোগিতা করবেন। আর ইয়াং অ্যাকটিভ দলটি নিয়ে যেন আমি এগিয়ে যেতে পারি সেজন্য সবাই দোয়া করবেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: