সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

১৮ দিনেও ক্লু মিলেনি নাজিম হত্যার

31ডেইলি সিলেট নিউজ :: অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নাজিমউদ্দিন হত্যাকাণ্ডের ১৮ দিন পেরিয়ে গেছে। কিন্তু চাঞ্চল্যকর এই হত্যার কোনো ক্লু উদঘাটন করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ঘটনাস্থলের আশপাশের ব্যবসায়ী ও নাজিমের বন্ধুদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ পর্যন্ত ১৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কিন্তু হত্যাসংশ্লিষ্ট কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি তাদের কাছে। হত্যাকাণ্ডের ক্লু উদঘাটন করতে নাজিমউদ্দিনের মোবাইলফোনের কল লিস্ট যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। একইভাবে ঘটনায় তার সঙ্গে থাকা সোহেল আহমেদের মোবাইলফোনের কল লিস্ট যাচাই বাছাই করেও কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। নাজিমউদ্দিনের ফেসবুকের বিভিন্ন স্ট্যাটাস ও কমেন্টকারী ব্যক্তিদের সম্পর্কে খোঁজ খবর নিচ্ছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ফেসবুকে নানা বিষয়ে লেখা রয়েছে নাজিমউদ্দিনের। এতে বিভিন্ন শ্রেণি তার প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে হত্যা করেছে বলে মনে করা হচ্ছে। এজন্য তার এসব স্ট্যাটাসে যারা মন্তব্য করেছেন তাদের সম্পর্কে তথ্য নেয়া হচ্ছে। ফ্রেন্ডলিস্টে যারা আছেন তাদের মধ্যে উগ্রবাদী কেউ আছেন কি-না এসব বিষয়েও খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে বলে জানান তারা। বিষয়টি নিয়ে তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তার পাশাপাশি মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র একটি টিম তৎপরতা চালাচ্ছে বলে সূত্রে জানা গেছে।

ইতিমধ্যে নাজিমের কয়েকজন বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। তার বন্ধু জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে তার সহপাঠী খন্দকার মুশফিকুজ্জামান জানিয়েছেন, ঘটনার আগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকের সামনে আড্ডা দিয়েছেন তারা কয়েকজন। কথা হচ্ছিল আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন মাস্টার্সের সবাই মিলে শিগগিরই কোথাও পিকনিক করবেন। এজন্য ঢাকার অদূরে গাজীপুর নিয়ে কথা হচ্ছিল। ওই আড্ডায় কারা কারা ছিলেন তাদের নাম সংগ্রহ করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তখন কেউ নাজিমকে অনুসরণ করেছে কি না এ বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। মাত্র তিন মাস আগে সিলেট থেকে ঢাকায় আসা নাজিমউদ্দিন সামাদকে ঢাকায় হত্যা করা হলেও সিলেট থেকেই তাকে টার্গেট করা হতে পারে বলে তদন্ত সংশ্লিষ্টদের ধারণা। চাঞ্চল্যকর এই মামলার ক্লু উদঘাটন করতে সিলেটকেন্দ্রিক তদন্ত শুরু করলেও এখনও অন্ধকারে তদন্ত সংশ্লিষ্টরা। ইতিমধ্যে নাজিমউদ্দিনের সিলেটের কয়েক বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এই জিজ্ঞাসাবাদ ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন ছাড়া মামলার তদন্তে উল্লেখযোগ্য কোনো অগ্রগতি নেই।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সমীর চন্দ্র সূত্রধর বলেন, হত্যাকাণ্ডের ক্লু উদঘাটনের জন্য তদন্ত অব্যাহত আছে। ইতিমধ্যে অনেককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। নাজিমউদ্দিনের ফেসবুকের বিভিন্ন পোস্টকে কেন্দ্র করে তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ৬ই এপ্রিল রাতে পুরান ঢাকার সূত্রাপুরের একরামপুরের ঋষিকেশ দাশ রোডে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে নাজিমউদ্দিনকে। তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন মাস্টার্সের ছাত্র ছিলেন। নাজিমউদ্দিন সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার তিলপাড়া ইউনিয়নের টুকাভরাউট গ্রামের মৃত আবদুস সামাদের পুত্র।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: