সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ২৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে এমপি ইয়াহইয়া চৌধুরীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধিলঙ্গনের অভিযোগ

5বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে স্থানীয় এমপি ও কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টি (জাপা)’র সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া’র বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধিলঙ্গনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করতে আচরণবিধিলঙ্গন করে এমপি ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়া ‘লাঙ্গল প্রতিকে’ ভোট যাচ্ছেন বলে অভিযোগ করছেন অন্যান্য প্রার্থী।

সম্প্রতি (শুক্র/শনিবার) উপজেলার দেওকলস ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনেনীত প্রার্থী ও নিজের (এহিয়ার) ছোট ভাই সহল আল রাজী চৌধুরীর সমর্থনে সমসপুর গ্রামে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন এমপি ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়া। সভায় উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সম্পাদক মনোহর আলী, এলাকার মুরব্বী রইছ আলী, আরশ আলী, আপ্তাব আলী, শফিক মিয়া প্রমুখ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন বলে এমন অভিযোগও রয়েছে।

বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আলাল আহমদ বলেন, আমরা আশা করে ছিলাম নির্বাচনে এমপি সাহেবের ভাই প্রতিদ্বন্দিতা করলেও তিনি (এমপি) নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করবেন। কিন্তু তিনি তা না করে নিজেই ভাইয়ের পক্ষে প্রচারণায় নেমেছেন। যা সঠিক কাজ নয় বলে মনে করি। তিনি (এমপি) যেন নিরপক্ষ থাকেন এই আশা করি।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবুল কালাম জুয়েল সাংবাদিকদের বলেন, ইউপি নির্বাচনে এমপি সাহেবের ভূমিকা দেখে মনে হচ্ছে যেন তাঁর ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী হননি, তিনি নিজেই প্রার্থী হয়েছেন। আচরণবিধিলঙ্গন করে এভাবে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় অংশ গ্রহণ করা তাঁর (এহিয়া) উচিত হয়নি।

স্বতস্ত্র (আ.লীগের বিদ্রোহী) চেয়ারম্যান প্রার্থী ফখরুল আহমদ মতছিন বলেন, এমপি সাহেব ভাইয়ের পক্ষে প্রকাশ্যে প্রচার-প্রচারণা করছেন। তিনি নিরপেক্ষ থাকাটাই ভাল। তাঁর (এহিয়া) ভাইয়ের পোস্টার দেয়ালে সাটানো রয়েছে কিন্তু তাতে আচরণবিধিলঙ্গন হয়না, শুধুমাত্র আমাদের বেলায় আচরণবিধিরঙ্গন হয়।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কোন প্রার্থী পক্ষ নিয়ে এমপি মহৃদয় যাতে প্রচার-প্রচারণা অংশগ্রহন না করেন সে জন্য তাঁকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে দাবি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাশহুদুল কবীর সাংবাদিকদের বলেন, ‘এমপি সাহেব’ কোনো প্রার্থীর পক্ষে প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিলে কিংবা মতবিনিময় সভা বা উঠান বৈঠকে বক্তব্য সেটা নির্বাচনী আচরণবিধিলঙ্গন হবে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ আজিজুল ইসলাম বলেন, রিটানিং কর্মকর্তা বরাবরে এব্যাপারে কেউ লিখিত আবেদন করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নির্বাচনী আচরণবিধিলঙ্গন করে তিনি কোনো প্রচার-প্রচারণায় অংশ নেননি দাবি করে স্থানীয় এমপি ও কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়া বলেন, উপজেলার কালীগঞ্জ বাজারে জাতীয় পার্টির কার্যালয় উদ্বোধনের ছবি দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালনো হচ্ছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: