সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ক্রিকেটার শাহাদাতের মামলায় বিচারক ও সাংবাদিককে পরোয়ানা

full_403182443_1461511027নিউজ ডেস্ক : গৃহকর্মী নির্যাতনের মামলায় জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার কাজী শাহাদাত হোসেন ও তার স্ত্রী জেসমিন জাহান নিত্যের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে হাজির না হওয়ায় ঢাকার মহানগর হাকিম স্নিগ্ধা রানী চক্রবর্তী ও মামলার বাদী সাংবাদিক খন্দকার মোজাম্মেল হকসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারে পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

রোববার ঢাকার ৫ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুানালের বিচারক তানজীনা ইসমাইল এ দিন ঠিক করেন। পরারপ তিন তারিখে সাক্ষীদের বিরুদ্ধে আদালতে এসে সাক্ষী দেওয়ার জন্য সমন জারি করা হয়। তারপরও সাক্ষীরা আদালতে হাজির না হওয়ায় এ পরোয়ানা জারি করা হয়। আগামী ২৫ মে সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য পরবর্তী দিন রাখা হয়েছে।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের মামলায় অভিযোগ গঠন করেন আদালত। অভিযোগ গঠনের সময় বিচারক আসামিদের উপস্থিতিতে অভিযোগ পাঠ করে শোনানোর পর আসামিরা নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন। এর আগে গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে একটি চার্জশিট দাখিল করা হয়। মিরপুর মডেল থানার উপ পরিদর্শক মো. শফিকুর রহমান আসামিদের বিরুদ্ধে এই চার্জশিট দাখিল করেন।

চার্জশিটে আসামিদের বিরুদ্ধে নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৪ (২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে যে, আসামি শাহাদত ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে গৃহকর্মী হ্যাপীকে শারীরিক নির্যাতনের প্রমাণ পাওয়া গেছে। আসামি ক্রিকেটার কাজী শাহাদাত হোসেন ও তার স্ত্রী জেসমিন জাহান নিত্য বর্তমানে আদালতের আদেশে জামিনে আছেন।

এর আগে মামলাটিতে গত বছরের ৪ অক্টোবর শাহাদাতের স্ত্রী জেসমিন জাহান নিত্যকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করলে আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠায়। এরপর ওই বছরের ৫ অক্টোবর শাহাদাত আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তারও জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠায়। দীর্ঘদিন কারাভোগের পর গত ১ ডিসেম্বর মহানগর দায়রা জজ নিত্যের এবং গত ৮ ডিসেম্বর হাইকোর্ট শাহাদাতের জামিন মঞ্জুর করলে তারা কারামুক্ত হন। মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, মিরপুরের ২ নম্বর সেকশনের এইচ ব্লকের ৫ নম্বর রোডে শাহাদাতের বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করত হ্যাপি। গত ৬ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১১টার দিকে পল্লবীর সাংবাদিক কলোনির ৩ নম্বর রোডের মাথায় হ্যাপিকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন মিরাজ উদ্দীন নামে এক ব্যক্তি।

গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে জাতীয় দলের ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেনের বিরুদ্ধে গত ৬ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাংবাদিক খন্দকার মোজাম্মেল হক মিরপুর মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় শাহাদাত ও তার স্ত্রী নিত্য শাহাদাতকে আসামি করা হয়। মামলার এজাহারে তাদের বিরুদ্ধে শিশুটিকে অমানুষিক নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়। এরপর গত ১৩ সেপ্টেম্বর গৃহপরিচারিকা মাহফুজা আক্তার হ্যাপি (১১) আদালতে হাজির হয়ে জবানবন্দি প্রদান করেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: