সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছাদ থেকে পড়ে গিয়েছিল আসিফ!

Ashif-Akbarবিনোদন ডেস্ক:
১৯৮১ সালের কথা। ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে ছাদ থেকে পড়ে গিয়েছিল জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী আসিফ আকবর। সে সময় ডঃ ফারুক বলেছিলেন-বয়স ত্রিশ পেরুলেই শুরু হবে শারীরিক যন্ত্রনা। ঘাড়ের তিনটা হাড় আঁকাবাঁকা, বাম বাহু থেকে পুরো হাত এক্স–রে রিপোর্টে আলগা দেখায়, বাম হাতের আঙ্গুল আগেই ভাঙ্গা। বাম পাশেও ঘুমোতে পারেনা, ডান পাশে ঘুমালে বাম হাত উল্টে যায়।

এভাবেই নিজের শরীরে কষ্টের কথাগুলো প্রকাশ করেছিলেন তিনি। নিজের ভেরিফাইড ফেইসবুকে দুটো ছবি পোষ্ট করে আসিফ আকবর এসব কথা লিখেন। তিনি আরো লিখেন, “চয়ন বাংলাদেশের স্বনামধন্য ফিজিও থেরাপিষ্ট, সে আমার কাছে ম্যাজিশিয়ান। সেলিব্রিটি ক্রিকেট খেলার সময় পরিচয়, সে আগে থেকেই আমাকে ভালবাসে। সব সময় ব্যাথা উপেক্ষা করা যায় না, সহ্য করে যেতে হয়, তাইই করছি, তবে চয়নের হাতের ম্যাজিকে আশা জেগে ওঠে। কোন মতে দশটা দিন মাসে সুস্থ্য থাকলেই আমি আমার কাজগুলো করতে পারি । তবে ব্যাথা থাক বা না থাক অনুরোধের আসর গুলোতে উপস্থিতি চলছে, চলবে, নইলে আবার শিল্পী বিনয় প্রশ্নবিদ্ধ হবে ।

ব্যাথায় যন্ত্রনাকাতর হলে মনে হয় খরস্রোতা নদীটি এখন মৃত প্রায় । ফেসবুকে নাই কেন, নতুন গান বের হয়না কেন, দাওয়াতে যেতে পারিনা কেন !!! এ রকম নানান কেন’র উত্তর আমার প্রায় অসাড় শরীর তখন দিতে পারেনা। তবু মহান আল্লাহ চয়নকে পাঠিয়েছেন আমার জন্য, তাইতো রাজীবের ভাষায়- ‘একলা আমার দল’টা টিকে আছে কোন ভাবে ।সব দিক থেকে ব্যাথা যতই বাড়ুক,শরীরের ব্যাথা প্রশমনের জন্য চয়ন তো আছেই। চয়নের জন্য শুধুই ভালবাসা।”

আসিফ আকবরের ফেসবুক পেজ থেকে নেওয়া

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: