সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৪ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘মিডিয়াম ফাস্ট স্লো অফ স্পিনার লেগ কাটার বোলার’ মুস্তাফিজুর

full_1540888783_1461323431খেলাধুলা ডেস্ক:
আইপিএলে গতকাল গুজরাট লায়ন্সের সঙ্গে সানরাইজার্সের খেলা চলাকালে মুস্তাফিজের শেষ দিকের একটি ওভারের পর এই টুইটটি করা হয়।

মুস্তাফিজুর রহমানকে কীভাবে বর্ণনা করবেন? মিডিয়াম ফাস্ট স্লো অফ স্পিনার লেগ কাটার বোলার!’ সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টের টুইট এটি।

বোলিং বৈচিত্র্যের কারণে হয়তো মুস্তাফিজকে মজা করে এভাবে পরিচয় করানো হচ্ছে সানরাইজার্সের টুইটারে। সত্যিই কি এমন বিচিত্র বোলিং করে মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন না টাইগারদের এই বোলিং পোস্টারবয়?

গতকালের ম্যাচে ড্যাশিং ওপেনার ব্রেন্ডন ম্যাককালামকে অফ কাটার, ব্যাটিং স্তম্ভ সুরেশ রায়নাকে ইয়র্কার, রবীন্দ্র জাদেজাকে গুড লেংথ আর আকাশদীপ নাথকে দুর্বোধ্য স্লোয়ারে যখন হতভম্ভ করছিলেন, তখন খোদ ধারাভাষ্যকারকেই তো বিস্ময়ভরে বলতে হচ্ছিল, ‘ওহ মাই গুডনেস!’

সানরাইজার্সের বোলিং আক্রমণের মধ্যমনি ‘দ্য ফিজ’ খ্যাত মুস্তাফিজুরের এই বিস্ময়কর বোলিং ঘোরে থেকে ঘোরে ফেলে দিচ্ছে যেন ভিভিএস লক্ষ্মণ-ডেভিড ওয়ার্নার-ভুবনেশ্বর কুমারদেরও।

প্রতিটি ম্যাচে শেষে সেই বিস্ময় তারা প্রকাশ করছেন ভীষণ উচ্ছ্বাসেও। যেমন গুজরাট লায়ন্সের সঙ্গে ১০ উইকেটের বিশ‍াল ব্যবধানে জেতার পর সানরাইজার্সের ম্যান অব দ্য ম্যাচ ভুবনেশ্বর কুমার ও অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার প্রশংসায় ভাসাচ্ছিলেন মুস্তাফিজকে।

ভুবনেশ্বর বলছিলেন, ‘মুস্তাফিজের সঙ্গে বোলিং করতে পারাটা দারুণ ব্যাপার। আমি তার কাছ থেকে স্লোয়ার বল শেখার চেষ্টা করছি, কিন্তু কেউ আসলে তার মতো করে পারে না।’

আর ওয়ার্নার বলছিলেন, ‘ফিজি’র (মুস্তাফিজের আদুরে ডাকনাম) বলের গতির পরিবর্তন একেবারে বিচিত্র। আমি বেঙ্গালুরুতে তার সামনে পড়েছিলাম এবং ও আমার স্টাম্প ভাঙতে চেয়েছিল। ও যেভাবে বলের গতি পরিবর্তন করে তা এক ধরনের শিল্প।’

আর নিলামে মুস্তাফিজকে কেনার পর থেকেই তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ লক্ষ্মণ যেন গতকালের ম্যাচের পর ঘোর কাটতে পারছিলেন না আরও। তিনি বলছিলেন, ‘ও এতো স্মার্ট বোলার! শুরুর দিকে যেমন বোলিংয়ে ৩-৪ রকমের বৈচিত্র্য, শেষের দিকেও তেমনি। সবকিছুতে কী দারুণ নিয়ন্ত্রণ! আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক বছরও হয়নি, তারপরও যেন কতো অভিজ্ঞ বোলার!’

গতকালের খেলায় ৪ উইকেট নিয়ে ভুবনেশ্বর ম্যান অব দ্য ম্যাচ হলেও দারুণ বোলিংয়ে রানের লাগাম টেনে গুজরাটের ব্যাটসম্যানদের বিপাকে ফেলে সেই পথ সুগম করেছিলেন মুস্তাফিজই। তার ১৯ রান দিয়ে করা ৪ ওভারই যে ম্যাচের গতিপথ নির্ধারণে প্রধানতম ভূমিকা রেখেছিল সে বিষয়টি ম্যাচ শেষে স্মরণ করে দেওয়া হয় সানরাইজার্সেরই টুইটারে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: