সর্বশেষ আপডেট : ২৭ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২৮ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পাত্রীর বয়স ৫, পাত্রের ১৩

43আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে আইনত বাল্যবিবাহ নিষিদ্ধ হলেও দেশটিতে হরহামেশাই এ ধরনের বেআইনি কর্মকাণ্ড ঘটে থাকে। গত বুধবার রাজস্থানে পাঁচ বছরের এক মেয়ে শিশুকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে দেয়া হয়েছে বলে স্থানীয় এক পত্রিকায় খবর বেরিয়েছে। তাকে যে পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দেয়া হয়েছে সেও কিন্তু শিশু।

রাজস্থানের ছত্রিশগড় শহরে গত দু দিন ধরে এক গণবিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। ওই আসরে পাত্রী হিসেবে হাজির করা হয়েছিল ৫ বছরের এক শিশুকেও। ওই অনুষ্ঠানের ওপর ধারণকৃত ভিডিওতে দেখা যায়, মেয়েটি বিয়েতে রাজি নয় এবং সে ক্রমাগত কেঁদেই চলেছে। তার পরিবার তাকে ১৩ বছরের এক ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিচ্ছে। মেয়েটির পরনে ছিল নকশা করা লাল লেহেঙ্গা। ভারি ওই পোশাকের ভারে ঠিকমত হাঁটতেও পারছিল না মেয়েটি। তাই বড়তা তাকে কোলে নিয়ে সাত পাক ঘুরিয়ে আনেন। হিন্দুদের বিয়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে সাত পাক বা সাত ফেরি। বর-বউ একসঙ্গে আগুনের কুণ্ডলীর চারপাশ দিয়ে সাত বার ঘুরে আসাকে বলে সাত পাক।

ভারতে শিশু ‍বিবাহ নিষিদ্ধ করে আইন হয়েছে ২০০৬ সালে। এরপরও দেশটিতে অহরহএ ধরনের বেআইনি কর্মকাণ্ড ঘটতে দেখা যায়। গত মঙ্গলবার ও বুধবার ধরে গণবিবাহের ওই অনুষ্ঠানে মোটি ছয়টি বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠিত হয় বলে রিপোর্ট করেছে স্থানীয় এক পত্রিকা। হিন্দু দেবতা রামের জন্মদিবস উপলক্ষে একটি ধর্মীয় সংগঠন ওই বিয়ের আয়োজন করেছিল।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: