সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রেমিক হিসেবে সাংবাদিকরাই সেরা!

39নিউজ ডেস্ক: সাংবাদিকদের সঙ্গে নাকি ডেট করা বেশ কঠিন। সাংবাদিকদের পকেট নাকি সব সময়ই খালি আর তারা নাকি সব সময় বড্ড বেশি কাজ নিয়েই মেতে থাকে।কথাটা নেহাত মিথ্যে নয়। কিন্তু তাই বলে তাদের সঙ্গে ডেট করা কঠিন, এ কথা নেহাতই আজগুবি। মিথ্যা মাত্র। আসলে সাংবাদিকদের সঙ্গে প্রেম করা বেশ লাভজনক।
জেনে নিন কেন সাংবাদিকরা প্রেমিক বা প্রেমিকা হিসেবে অন্য যে কোনও পেশার পার্টনারের থেকে কয়েকশো মাইল এগিয়ে:
১. পেশার খাতিরে সাংবাদিকরা এমনিতেই চড়কিপাক ঘোড়েন। তাই শহরের অলিগলিতে কোথায় কোন খাবারের ঠেক, কোন হুল্লোড়ের আড়ত সব তাদের নখদর্পণে। তাই তাদের সঙ্গে প্রেম মানে জীবনে খানা খাজানা আর ফূর্তির মজলিসের সংখ্যার প্রাচুর্য্য।
২. সাংবাদিকরা সচরাচর এতটাই কম মাইনে পান যে টাকা বিষয়ে তাদের মোহ ব্যাপারটা তৈরি হয় না। ভেবে দেখুন, টাকার উপর বিশেষ টান নেই এমন প্রেমিক বা প্রেমিকা কি সহজে মেলে?
৩. পেশার জন্য সাংবাদিকরা সর্বদাই ব্যস্ত। তাদের সঙ্গে প্রেম করলে আপনার ব্যক্তিগত স্পেসের বিশেষ অভাব হবে না। আপনার নিজস্ব সময়ে নাক গলানোর সময়টাই যে তাদের বিশেষ নেই।
৪. সাংবাদিকরা সর্বঘটে কাঁঠালি কলা সদৃশ। চাই বা না চাই গুচ্ছ কাজ তাদের শিখে রাখতেই হয়, যাকে বলে বাই ডি ফল্ট মাল্টিটাস্কিং।এক সঙ্গে অনেক কাজ তাদের অভ্যাস হয়ে যায়।বাড়িতেও এমন একজন মাল্টিটাস্কিং পার্টনার কে না চায় বলুন?
৫.সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলুন। দেখবেন, জানা থাকুক বা না থাকুক আলপিন থেকে আলাস্কা, সব কিছু নিয়েই তারা নাতি দীর্ঘ বক্তিমে দিতে পারেন। ফলে যখন কোনও কাজ থাকবে না, বোর হবেন, তাদের সঙ্গে আরামসে বকবক করতে পারেন।
৬. খবর সন্ধানের তাগিদে এর ওর তার থেকে এত এটা ওটা সেটা শুনতে হয়, সাংবাদিকরা আপসেই ভাল
শ্রোতা হয়ে ওঠেন।প্রেমিক বা প্রেমিকা যদি ভাল শ্রোতা হল, তার থেকে ভাল আর কী-ই বা হতে পারে?
৭. সাংবাদিকরা বিশ্বাসী আর হেল্ফফুল হয়।
৮. এমনিতেই তাদের এমন গাধার খাটুনি খাটতে হয়, যে, সাংবাদিকরা ইচ্ছা-অনিচ্ছার উর্ধ্বে গিয়ে বাই ডি ফল্ট কঠোর পরিশ্রমী হয়ে ওঠে।সঙ্গী বা সঙ্গিনী পরিশ্রমী হওয়া যে কারও পক্ষেই অত্যন্ত সুখকর।
৯. সাধারণত সাংবাদিকরা বেশ ক্রিয়েটিভ হন। নিজের পেশা ছাড়াও আরও অনেক কিছুতেই পারদর্শী হন।পার্টনার যদি সৃজনশীল হন, তা হলে গর্বে বুকের ছাতি ইঞ্চি খানেক বাড়ে বৈকি।
১০. সারাটা দিন এর ওর সঙ্গে খেজুরে ভদ্রতা করতে গিয়ে এমন দেঁতো হাসিটা দিতে হয়, সেই হাসিটাই সাংবাদিকদের কেমন অভ্যাস হয়ে যায়।হাসি খুশি বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ড কে না চান?

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: