সর্বশেষ আপডেট : ৪৯ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘ও আমার পুত যাইছ না রে, ফিরয়্যা আয়’

38নিউজ ডেস্ক: ‘ও আমার পুত, যাইছ না রে। তুই জীবনে অনেক কষ্ট করছোস, ফির‌্যা আয়। ও খোদা, আমার পুতরে ফিরয়্যা দাও’।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগ মর্গের কলাপসিবল গেট ধরে এভাবেই বিলাপ করছিলেন ৬৫ বছর বয়সী বৃদ্ধা আনোয়ারা খাতুন।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) ভোরে ধানমন্ডিতে বেপরোয়া যানবাহন কেড়ে নিলো তার ছেলের প্রাণ। জরুরি বিভাগের মর্গে ট্রলির ওপর পড়ে আছে মোহাম্মদ ইব্রাহিমের (৩০) নিথর দেহ।

শারীরিক প্রতিবন্ধী রিকশা চালক ইব্রাহিম রাজধানীর রায়েরবাজার সাদেক খান তেলের পাম্পের পাশে কদম আলীর বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। পরিবারে রয়েছে তার স্ত্রী জান্নাত ঝুমুর, মা আনোয়ারা এবং দুই মেয়ে।

ইব্রাহিমের দেড় বছর বয়সী মেয়ে মনি জানে না তার কী হারিয়ে গেছে। পাঁচ বছর বয়সী আরেক মেয়ে মীমও বুঝে উঠতে পারছে না তার বাবা কলাপসিবল গেটের ভেতরে ট্রলিতে কেন শুয়ে আছে?

আনোয়ারা তখন মর্গের সামনে বসে বুক চাপড়াচ্ছেন, কলাপসিবল গেটে মাথা ঠুকছেন। সম্বিত ফিরে এলে পাশের লোকজনদের ডেকে বলছেন, সেই এক বছর বয়সে টাইফয়েড হয়ে ইব্রাহিমের দুই পা অবশ হইয়ে যায়। ডান পাওয়ে কিছুটা শক্তি পাইলেও বাম পাওয়ে একেবারেই অচল। কোলে করে বড় করেছি, মানুষ করেছি।

‘বাবা তুই যাইছ না রে, ফির‌্যা আয়। ও খোদা, আমার পুতরে ফিরায়্যা দাও,’ বলেই মূর্ছা যাচ্ছেন আনোয়ারা।

ইব্রাহিমের আত্মীয় রুবেল জানান, আনোয়ারার স্বামী শামসুল হক মারা যাওয়ার পরে ভোলা জেলার দৌলতখান মধ্য জয়নগর গ্রাম ছেড়ে ঢাকায় চলে আসেন তারা। ছোট ইব্রাহিম এবং দুই মেয়েকে আনোয়ারা একাই মানুষ করেন।

ইব্রাহিম ব্যাটারিচালিত রিকশায় এক বাজার থেকে অন্য বাজারে মাছ টেনে সংসার চালাতো। সোমবার ভোরে বেপরোয়া গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত হলে পথচারীরা তাকে প্রথমে আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে ভর্তি করে।

‘সেখানে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক ঢামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করার পরামর্শ দেন। সেখানে ১০৩ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়,’ যোগ করেন তিনি।

ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া জানান, ভোরে ধানমন্ডি এলাকায় আজিমপুর-মিরপুর রোডে ল্যাবএইড হাসপাতালের পাশে অজ্ঞাত যানবাহনের ধাক্কায় আহত হলে ইব্রাহিমকে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। সংবাদ পেয়েছি সেখানে তিনি মারা গেছেন।

এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: