সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ইমরানও আরেকটা সুবিধাবাদী: জয়

5নিউজ ডেস্ক: গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারকে ‘সুবিধাবাদী’ আখ্যায়িত করে তাকে ফেইসবুকের বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সজীব ওয়াজেদ জয়। শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তারের নিন্দা জানানোয় রোববার জয় তার ফেইসবুক পেইজে দেয়া এক স্ট্যাটাসে এ আহ্বান জানান।

বিএনপিঘনিষ্ঠ সাংবাদিক শফিক রেহমানের গ্রেপ্তারের নিন্দা জানিয়ে শনিবার ইমরান সরকার তার ফেইসবুক পেইজে সরকারের সমালোচনা করেন।

তিনি লিখেছিলেন, “৮১ বছর বয়সী প্রবীণ সাংবাদিক শফিক রেহমানের গ্রেপ্তার ও রিমান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। শফিক রেহমানের রাজনৈতিক আদর্শের সাথে আমি একমত নই। ভিন্নমতের হলেই তাকে দমন করার যে নোংরা রাজনৈতিক অপকৌশল, এর একটা অবসান চাই।”

জয় তার ফেইসবুক পেইজে লেখেন, “আমি আশাই করেছিলাম বিএনপি এটা নিয়ে মিথ্যা বলার চেষ্টা করবে। যদিও, আমি আশ্চর্য্য হয়েছি ইমরানের বিষয়ে।

“সম্ভবত শেষ পর্যন্ত তার আসল চেহারাটা উন্মোচিত হলো। এটা দেখে মনে হচ্ছে সে আমাদের বেশিরভাগ সুশীলের মতই, আরেকটা সুবিধাবাদী এবং মিথ্যাবাদী। হয়তো বিএনপি তাকে পয়সা দিয়েছে। কে জানে।”

বক্তব্যের জন্য ইমরানকে ক্ষমা চাইতে হবে মন্তব্য করে জয় আরও লেখেন, “যেভাবেই হোক, আমি তার প্রতি সব শ্রদ্ধা হারিয়েছি। তাকে তার বক্তব্য প্রত্যাহার করে আমাদের সরকারের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।”

ইমরানকে ফেইসবুকে অনুসরণ করা থেকে বিরত থাকতেও নিজের ভক্ত ও অনুসারীদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, “আমি আমার সকল বন্ধু এবং ভক্তদের কাছে আহ্বান জানাচ্ছি, যারা তাকে অনুসরণ করেন তারা তাকে ফেইসবুক থেকে আনফলো/আনফ্রেন্ড করুন। সে একজন অপরাধীর হয়ে কথা বলছে, যে আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছিলো।”

শনিবার সকালে রাজধানীর ইস্কাটনের বাসা থেকে শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রে জয়কে অপহরণের চক্রান্তের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের অনুমতিতে এরই মধ্যে শফিক রেহমানকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।

জয় আরও লিখেছেন, “যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিস আমাকে অপহরণ ও হত্যার ষড়যন্ত্রে শফিক রেহমানের সরাসরি সংশ্লিষ্টতা উদ্ঘাটন করেছে। তারা এ বিষয়ে প্রমাণাদি আমাদের সরকারের কাছে দিয়েছে। তাকে এই প্রমাণের ভিত্তিতেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমি এরচেয়ে বেশি কিছু প্রকাশ করতে পারছি না, কিন্তু এই প্রমাণ দ্ব্যর্থহীন এবং অখণ্ডনীয়।”

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: