সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

যে মেয়েটি বাঘের সঙ্গে খেলত, তাকে খেল বাঘ!

2016_04_18_09_18_09_xaZ2wUKIS49boO3NXmCPeO3nCAoGRr_originalনিউজ ডেস্ক:: বাঘের সঙ্গে তার ছিল দোস্তী। খাওয়ানো, ঘুম পাড়িয়ে দেয়া, কী করতেন না মেয়েটি? আর ওই বাঘই কি না একদিন তাকে গিলে ফেলল! এমন দুঃখজন ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকার ফ্লোরিডার পাম বিচ চিড়িয়াখানায়।

সহকর্মীরা মেয়েটিকে ডাকতেন ‘টাইগার হুইশপারার’ বলে। নামটা সার্থকই বলা যায়। বাঘের সঙ্গে তার মেলামেশা খানিকটা সেরকমই ছিল। যেখানে বাঘের ত্রিসীমানায় যেতেই বুক কাঁপত চিড়িয়াখানার সব কর্মীদের, সেখানে স্ট্যাসি কনওয়াইসার অনায়াসেই বাঘের ডেরায় কাটাতেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা। খাওয়াতেন, আদর করতেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই বাঘের হামলাতেই মৃত্যু হলো তার।

দীর্ঘ দিন ধরে পাম বিচ চিড়িয়াখানায় বাঘেদের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন স্ট্যাসি। শনিবারও খাওয়াতে বাঘের খাঁচার মধ্যে ঢুকেছিলেন স্ট্যাসি। সেখানেই তার ওপর হামলা চালায় একটি মালয়ান বাঘ।

স্ট্যাসিকে বাঁচাতে বাঘটিকে লক্ষ করে চিড়িয়াখানার কর্মীরা ঘুম পাড়ানি গুলি ছুড়লেও, দাঁত ও নখের আঁচড়ে ক্ষতবিক্ষত স্ট্যাসিকে বাঁচানো যায়নি।

বাঘপ্রেমী স্ট্যাসির মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা শহরেই। কারণ বাঘেদের সত্যিই খুব ভালোবাসতেন স্ট্যাসি, তা শহরের সবাই জানতেন।

পাম বিচ চিড়িয়াখানার মুখপাত্র নাকি কার্টারের কথায়, ‘পশুদের খুব ভালো না বাসলে, এই কাজ করা আপনার পক্ষে সম্ভব নয়। কারণ হিংস্র পশুদের মধ্যে থাকা মানে প্রতি মুহূর্তেই বিপদ। স্ট্যাসি যে কী পরিমাণ বাঘদের ভালোবাসতেন, তা বলে বোঝানো যায় না। পশুরাও ওঁকে কাছে টেনে নিত।’

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: