সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৫ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রবাসীরা মোবাইলে রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন

imagesতথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক::মাস্টার কার্ড,ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন ও বিকাশ যৌথভাবে গতকাল রোববার মুঠোফোনে প্রবাসী আয় বা মানি ট্রান্সফার সেবা চালু করেছে। এতে প্রবাসী বাংলাদেশিরা দেশে তাঁদের স্বজনকে সরাসরি মুঠোফোনে রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন। রাজধানীর একটি হোটেলে ওই তিন প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যাক ব্যাংক সেবা চালু উপলে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম উপস্থিত ছিলেন।

একজন বিকাশ গ্রাহক একটি একক লেনদেনের মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৩৫ হাজার টাকা পাঠাতে পারবেন। দিনে পাঁচবার একজন লেনদেন করতে পারবেন। এক দিনে সর্বোচ্চ ১ লাখ ১৫ হাজার টাকা পাঠানো যাবে। এভাবে মাসে সর্বোচ্চ ২০ বার লেনদেন করা যাবে।মুঠোফোন অ্যাকাউন্টে সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা রাখা যাবে।অনুষ্ঠানে আরও ছিলেন ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আর এফ হোসেন, বিকাশের এমডি ও সিইও কামাল কাদীর, মাস্টার কার্ডের গ্র“প এক্সিকিউটিভ ম্যাথিউ ড্রাইভার, ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট জ্যাঁ কড ফারাহ প্রমুখ।
প্রবাসী বাংলাদেশিরা এখন দেশে স্বজনদের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সরাসরি টাকা পাঠাতে পারবেন। রোববার মাস্টারকার্ড, ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন, ব্র্যাক ব্যাংক ও বিকাশ যৌথভাবে প্রবাসী আয় স্থানান্তরের এই সেবা চালু করেছে।এই সেবার আওতায় বিকাশ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে কোনো গ্রাহক দিনে সর্বোচ্চ পাঁচ বারে মোট একলাখ ১৫ হাজার টাকা পাঠাতে পারবেন। আর মাসে ২০টি লেনদেনে সর্বোচ্চ একলাখ ৫০ হাজার টাকা পাঠানো যাবে।তবে কোনো গ্রাহক একবারে ৩৫ হাজার টাকার বেশি পাঠাতে পারবেন না।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, আর্থিক লেনদেনের ধরন আপনারা বদলে ফেলেছেন। মানুষ এখন বলে আমাকে বিকাশ কর, আমার কাছে পাঠাও’ বলে না।বাংলাদেশের অর্থনীতিতে প্রবাসী আয়ের বড় অবদান রয়েছে, যা জিডিপির ১০ শতাংশ।অনন্য এই উদ্যোগের মাধ্যমে ৮০ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি লাভবান হবে বলে মন্তব্য করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।প্রায় ১২ কোটি মানুষ বাংলাদেশে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে, যার মধ্যে ২ কোটি ২০ লাখ মানুষের বিকাশ অ্যাকাউন্ট আছে। আর দেশজুড়ে বিকাশের একলাখ ২০ হাজার এজেন্ট আছে।ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের মাধ্যমে বিকাশের এই সেবার আওতায় ২৪ ঘণ্টা এজেন্টদের কাছ থেকে টাকা তুলতে পারবেন গ্রাহকরা। অথবা তা না করে এই টাকা সরাসরি অন্য কারও অ্যাকাউন্টে পাঠানো, মোবাইল রিচার্জ, বিল পরিশোধ ও দোকানে কেনাকাটার কাজেও ব্যবহার করা যাবে।

এই টাকা তুলতে গ্রাহককে ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের রেফারেন্স নম্বর, টাকার পরিমাণ ও পিন নম্বর মোবাইলে প্রবেশ করাতে হবে। মাস্টারকার্ডের নিরাপদ পরিশোধ প্রযুক্তিতে উত্তোলনের অনুরোধ সফল হওয়ার পর ওই টাকা বিকাশ অ্যাকাউন্টে চলে আসবে।বিকাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদির বলেন, বিদেশ থেকে ব্যাংকের মাধ্যমে স্বজনদের পাঠানো টাকা আনতে গ্রামের মানুষদের অনেক কষ্ট করতে হয় বলে তাদের সুবিধার জন্য এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আরেফ হোসেন, মাস্টার কার্ডের গ্র“প এক্সিকিউটিভ ম্যাথিউ ড্রাইভার ও ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট জ্যাঁক কড ফারাহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ধরা যাক, সৌদি আরবে বসবাসরত একজন প্রবাসী বাংলাদেশে তাঁর স্ত্রীর কাছে অর্থ পাঠাবেন। এ জন্য তাঁকে প্রথমে ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের নির্ধারিত এজেন্টের কাছে গিয়ে একটি ফরমে তাঁর স্ত্রীর (প্রাপক) নাম ও ঠিকানা লিখে পূরণ করতে হবে। তারপর নির্দিষ্ট অঙ্কের অর্থ জমা দিলে ওই এজেন্ট ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের রেফারেন্স নম্বর (এমটিসিএন) বা অর্থ লেনদেনের একটি নির্দিষ্ট নম্বর প্রবাসীকে দেবেন। তখন তিনি সেই নম্বরটি দেশে থাকা স্ত্রীর কাছে পাঠাবেন।এরপর রেমিট্যান্স প্রাপককে মুঠোফোনে নিজের বিকাশ হিসাবে যেতে হবে। বিকাশ মেন্যুতে গিয়ে রেমিট্যান্স ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন’ নির্বাচিত করে ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের রেফারেন্স নম্বর বা এমটিসিএন ও টাকার পরিমাণ উল্লেখ করে বিকাশ পিন চাপতে হবে।এরপর মাস্টারকার্ডের লেনদেন প্রযুক্তির মাধ্যমে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ প্রাপকের হিসাবে জমা হবে।পুরো প্রক্রিয়ায় প্রেরককে ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে। তবে প্রাপককে কোনো অর্থ খরচ করতে হবে না।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: