সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ২৮ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এবার আসামি হয়েও এসপির সঙ্গে সেলফি

72নিউজ ডেস্ক :: সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি আর শিক্ষক, পুলিশ ও সরকারি হিসাব রক্ষককে পিটিয়ে আহত করা সেই ছাত্রলীগ নেতা আতিকুর রহমান পারভেজ এবার দেখালেন আরো সাহসিকতার পরিচয়।

সরকারি কর্মকর্তাকে পেটানোর অভিযোগে মামলা দায়েরের পরেই তিনি সেলফি তুললেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গে। সেসব ছবি আবার পোস্ট করেছেন পটুয়াখালী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ নামের ফেসবুকেও। এ নিয়ে শহরজুড়ে উঠেছে আলোচনার ঝড়।

আলোচিত এই নেতা পারভেজ নিজেকে দীর্ঘদিন ধরে পটুয়াখালী সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি দাবি করে আসছেন। যদিও ওই কলেজে ছাত্রলীগের কোনো কমিটির অনুমোদনই নেই।

গত ১২ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ ও তার সহযোগীরা জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক জয়দেব চন্দ্র বলকে (৪০) তার অফিস কক্ষে গিয়ে মারপিট করে মারাত্মক জখম করেন।

হিসাব রক্ষককে মারধর আর জেলা পরিষদ কর্মচারীদের জন্য উত্তোলিত বৈশাখী ভাতা লুটের অভিযোগে ঘটনার দু’দিন পর ১৪ এপ্রিল পারভেজের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জনকে আসামি করে সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

এদিকে, হিসাব রক্ষককে মারধরের পর থেকেই সুষ্ঠু বিচার দাবিতে পটুয়াখালী জেলা পরিষদ কার্যলয়ে কর্মবিরতি শুরু করা হয়। কিন্তু মামলা দায়ের হওয়ার পরেও আসামি গ্রেপ্তার না হওয়ায় কর্মচারীরা ক্ষুব্ধ হন। এ কারণে তাদের কর্মবিরতি আগামী ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

শুধু তাই নয়, হামলার শিকার জয়দেব বলের ছবিসহ ঘটনার বিচার দাবিতে জেলা পরিষদের প্রধান ফটকে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একটি ব্যানার লাগালেও ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ তার লোকজন দিয়ে সেটি তুলে নিয়ে যান। আর ব্যানার নিয়ে যাওয়ার জন্য পারভেজ যে নির্দেশনা দিয়েছিলেন মোবাইল ফোনের সেই অডিও কলরেকর্ডও ফেসবুকে প্রকাশ পাওয়ায় শহর জুড়ে তোলপাড় চলছে।

তবে বিচার পাওয়া নিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন হামলার শিকার জয়দেবসহ জেলা পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এ আশঙ্কার কারণ হিসেবে দেখা গেছে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে প্রশাসনের হর্তাকর্তাদের সেলফি মহড়া!

মামলা দায়েরের পরদিন গত ১৫ এপ্রিল বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেনের পটুয়াখালীর নিজ বাসভবনে উপস্থিত হন আসামি পারভেজ। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক শামীমুল হক সিদ্দিকী, পুলিশ সুপার সৈয়দ মোশফিকুর রহমান, সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি- সদর সার্কেল) সাহেব আলী পাঠান, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিকুল ইসলামসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

ছাত্রলীগ নেতা পারভেজকে এসময় দেখা গেছে বেশ খোশ মেজাজে। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে পারভেজ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গে সেলফি তোলন। পরে তা পটুয়াখালী কলেজ ছাত্রীলীগ নামে খুলে বসা ফেসবুক আইডিতে প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার সৈয়দ মোসফিকুর রহমান বলেন, ‘আইনগত ভাবে যতটুক সিদ্ধ পুলিশ তাই করবে।’

উল্লেখ, পটুয়াখালী সরকারি কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি দাবি করা আতিকুর রহমান পারভেজের বিরুদ্ধে শিক্ষক ও পুলিশ পেটানো, সাংবাদিকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়াসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। গত ১২ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পারভেজ জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক জয়দেব চন্দ্র বলকে অফিস কক্ষে মারধর করে মারাত্মক জখম করেন। এ ঘটনায় ১৪ এপ্রিল তার নাম উল্লেখসহ ৪-৫ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। মামলার পরদিনই নববর্ষ উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেনের পটুয়াখালীর নিজবাস ভবনে গিয়ে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সেফলি তোলেন। পরে সেটা পটুয়াখালী কলেজ ছাত্রীলীগ নামে একটি ফেসবুক আইডিতে প্রকাশ করেন পারভেজ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: