সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বায়োমেট্রিকে সিমপ্রতি ৫০ টাকা : অন্যথায় ‘অবরোধ’

15তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক : বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনে মোবাইল কোম্পানিগুলোর কাছে সিমপ্রতি নূন্যতম ৫০ টাকা কমিশনের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলি-রিচার্জ অ্যান্ড মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায়িক অ্যাসোসিয়েশন। ৭ দিনের মধ্যে দাবি মানা না হলে কঠোর অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হবে বলে সংগঠনটির পক্ষ থেকে হঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা এই দাবি জানায়।

সংগঠনের সভাপতি মো. নুরুল হুদা বলেন, ‘সঠিকভাবে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের মাধ্যমে আমরা সামাজিক শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে চাই। কিন্তু যারা এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত রয়েছে, কোম্পানিগুলো তাদের প্রতিটি সিম রি-রেজিস্ট্রেনে কমিশন হিসেবে মাত্র ১ টাকা ৮০ পয়সা করে দিচ্ছে। যা রিটেইলারদের প্রতি প্রবঞ্চনার সামিল।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিটি সিম রি-রেজিস্ট্রেশন করতে গড়ে ১৫-২০ মিনিট ব্যয় হয়। সে বিবেচনায় এক দিনে ৮ ঘণ্টা পরিশ্রম করে ৩৩টি সিম রি-রেজিস্ট্রেশন করে একজন রিটেইলার পাচ্ছেন মাত্র ৬০ টাকা। এতে করে আমরা আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছি।’

সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়, ২০০৮ সালে প্রতিটি সিম রি-রেজিস্ট্রেশন বাবদ কোম্পানিগুলো ২৫ টাকা প্রদান করেছিল। বর্তমানে কোম্পানিগুলো অন্যায় আচরণ করছে। কোম্পানিগুলো তাদের কর্মচারীকে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকার বিনিময়ে বায়োমেট্রিক সিম নিবন্ধনের কাজ করাচ্ছে। সেখানে একই কাজের জন্য রিটেইলারদের কম পারিশ্রমিক দেয়া হচ্ছে।

সরকারের বেঁধে দেয়া সময়সীমার মধ্যে বায়োমেট্রিক সিম নিবন্ধন সফল করতে তাদের দাবি মেনে নেয়ার আহ্বান জানায় সংগঠনের নেতারা।

সংবাদ সম্মেলন থেকে আরো সাতটি দাবি তুলে ধরা হয়। এগুলো হলো- রিচার্জে প্রতি হাজারে ১০০ টাকা প্রদান; শুধুমাত্র মোবাইল ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দোকানেই রিচার্জ সিম প্রদান; রিচার্জ সিমে কোম্পানিগুলো কাছে বাধ্যতামূলক স্টক ব্যালেন্স রাখার নিয়ম প্রত্যাহার; দ্রুত সময়ের মধ্যে সিম রিপ্লেসমেন্টের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত বিকাশ এজেন্টদের ক্ষতিপূরণ প্রদান; এজেন্ট নাম্বার হ্যাকিং বা ক্লোনিং কলের মাধ্যমে এজেন্টের অর্থ আত্মসাৎ হলে কোম্পানিগুলোকে দ্রুত ফেরত প্রদানের ব্যবস্থা করা; যেকোন ধরনের আর্থিক দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ পেতে এজেন্ট সিমগুলোকে কোম্পানির মাধ্যমে বীমা সুবিধার আওতায় আনা এবং টেলি রিচার্জ ব্যবসায়ীদের বিশেষ প্রকল্পের আওতায় প্রয়োজনীয় ব্যাংক ঋণ প্রদানের ব্যবস্থা করা।

আগামী ৭ দিনের মধ্যে টেলি কোম্পানিগুলোকে এসব দাবি মেনে নেয়ার আহ্বান জানায় বাংলাদেশ টেলি-রিচার্জ অ্যান্ড মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায়িক অ্যাসোসিয়েশন। অন্যথায় দোকান বন্ধসহ লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দেয়া হবে বলেও সংগঠনটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রিপন ও প্রচার সম্পাদক জাকির হোসেনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: