সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৫০ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভালোবাসার রাজনীতি প্রতিষ্ঠার আহ্বান ফখরুলের

140036_1নিউজ ডেস্ক::
প্রতিহিংসা, জুলুম ও নির্যাতনের রাজনীতি পরিহার করে ভালোবাসার রাজনীতি প্রতিষ্ঠার জন্য সরকারি দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, গণতন্ত্রকে নিজের গতিতে চলতে দিন। না হলে দেশের পরিস্থিতি ভালো হবে না।

বিএনপির মহাসচিব নিযুক্ত হওয়ায় ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শুক্রবার রাতে জেলা বিএনপি আয়োজিত এক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।
মির্জা ফখরুল ইসলাম প্রশ্ন তুলে বলেন, আমরা কী এই বাংলাদেশ চাই? এ বাংলাদেশের জন্য কী যুদ্ধ করেছিলাম? একটা মুক্ত স্বাধীন বাংলাদেশ পাব, শোষণমুক্ত বাংলাদেশ পাব বলে আমরা যুদ্ধ করেছিলাম। কিন্তু সেই বাংলাদেশ হারিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, আজকে দেশের মানুষ লড়াই-সংগ্রাম করছে সেই অধিকারকে ফিরে পাওয়ার জন্য। আর সেই লড়াই-সংগ্রামে বাংলাদেশের মানুষ ইনশাআল্লাহ জয়ী হবে। কারণ বাংলাদেশের মানুষ কোনো দিন পরাজিত হয়নি।

দলের নেতা কর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে গিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, নেতা-কর্মীরা তিলে তিলে কষ্ট পরিশ্রম করে বিএনপিকে শক্ত ভিতের ওপর দাঁড় করিয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। আজকে আপনারা দৃঢ় কণ্ঠে উচ্চারণ করতে পারেন—ঠাকুরগাঁওয়ের মাটি বিএনপির ঘাঁটি।

সরকার দলীয় লোকজনের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, সরকারকে একটা কথা জানাতে চাই, অনুগ্রহ করে আপনারা প্রতিহিংসার রাজনীতি ছেড়ে দিয়ে ভালোবাসার রাজনীতিতে ফিরে আসুন। গণতন্ত্রকে চলতে দিন। সহনশীলতার রাজনীতি করুন। গণতন্ত্রকে নিজের গতিতে চলতে দিন। তা না হলে দেশের পরিস্থিতি ভালো হবে না।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমরা চাই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করবে। আমরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি শুধু একটি কারণে, আমাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলন অক্ষুণ্ন রাখতে চাই। নির্বাচনে অংশ নিয়ে প্রমাণ করতে চাই যে, আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। মানুষের ভোটের অধিকারে বিশ্বাস করি।

এ সময় মির্জা ফখরুল ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় চতুর্থ ধাপে ১২টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীদের পরিচয় করে দিয়ে ধানের শীষ মার্কায় ভোট চান।

জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি শাহেদ কামাল চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও পৌর মেয়র মির্জা ফয়সল আমিন, সাধারণ সম্পাদক তৈমুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক পয়গাম আলী, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুল হালিম, জেলা যুবদলের সদস্যসচিব মাহবুব হোসেন প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: