সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মৌলভীবাজারে ধানের সাথে তলিয়ে যাচ্ছে কৃষকের স্বপ্নও

016mmনিজস্ব প্রতিবেদক::
বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে মৌলভীবাজারের বিভিন্ন হাওরের বোরো ফসল তলিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকি, কাউয়াদীঘি ও বাইক্কা বিলসহ বেশক’টি হাওর ও বিলে ফলানো সোনালী ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। জেলায় ইতোমধ্যে তলিয়ে গেছে ৫৮৭ হেক্টর জমির ফসল।

গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি হওয়ায় এবং পাহাড়ি ঢল অব্যাহত থাকায় জেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষকরা ফসল হারানোর উৎকণ্ঠায় রয়েছেন কৃষককুল।

বৈশাখের শুরুতেই পাকা ধান গোলায় তুলার কথা ছিল। কিন্তু এর আগেই বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢল তাদের ঘামে ফলানো ফসলের সাথে কেড়ে নিচ্ছে স্বপ্নও।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার হাকালুকি হাওরের ফোয়ালা বিল,জ্বলা, বালিজুরি, হাওরখাল, বাড্ডা বিল, কৈয়ারকোণা, ফুটবিল, বইশমারা, টলারবের, হাওয়া বিল, ছিকলকান্দি, বিলাইয়া বিল; কাউয়াদীঘি হাওরের, গিরিম, জুলগাট, লামামিটিপুর, লামা ফিয়ালারকান্দি, লামাকান্দি এবং বাইক্কা বিলের আশিধুন, লাঙ্গলিয়া, খামাইছড়া ও ভুনবীসহ হাওরগুলোর বেশকিছু পাকা ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।

জেলা কৃষি সম্পসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়,এ বছর জেলায় মোট ৫২ হাজার ৩৩৬ হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে পানিতে তলিয়ে গেছে মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় ৯০ হেক্টর, রাজনগরে ৭২, শ্রীমঙ্গলে ১১০, কুলাউড়ায় ৮০, জুড়ীতে ৮৫, বড়লেখায় ৯০, কমলগঞ্জে ৬০ হেক্টরসহ মোট ৫৮৭ হেক্টর জমির ধান।

সরেজমিন হাকালুকি, কাউয়াদীঘিসহ বিভিন্ন হাওর এলাকার কৃষকদের সাথে আলাপকালে জানা গেছে,এবার আগাম বৃষ্টি হওয়াতে হাওরে তুলনামূলক ফসল ভালো হয়েছিল। কিন্তু টানা বৃষ্টিতে কাউয়াদীঘি হাওরের জুলঘাট,গিরিম এবং হাকালুকি হাওরের ফোয়ালা বিল,জ্বলা, বালিজুরি, হাওরখাল, বাড্ডাবিলের বেশকিছু পাকা ও আধাপাকা ধান তলিয়ে গেছে পানিতে।

কৃষক খায়রুল ইসলাম জানান, মিটিপুর, দইলদাঁড়ায় বড় বন্যা না হলে পানিতে তলিয়ে যেতো না। কিন্তু নদী ভরাটের কারণে উজান থেকে নেমে আসা পানি হাওরের গভীরে পৌঁছাতে না পারায় এসব এলাকার ধান পানির নিচে তলিয়ে যায়।

হাকালুকি হাওরপারের কৃষক রুমান মিয়া জানান, পাকার আগেই বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে হাওরের অনেক ধান। আমাদের বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন বোরো ধান।
জেলা অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (শস্য) সুজিত চন্দ্র দত্ত জানান, এবার অন্যান্য বছরের তুলনায় ভালো ফলন হয়েছিল। কিন্তু অতিবৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে জেলার বিভিন্ন এলাকার বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ইতোমধ্যে কৃষি বিভাগ ওইসব এলাকা পরিদর্শনও করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: