সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সুনামগঞ্জে সাত ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ প্রবাসী প্রার্থী

daily sylhet UP nirbachon sunamganjবিশেষ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের তিনটি উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে নয়জন প্রবাসী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে দলীয় প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৫জন। অন্যরা স্বতন্ত্র প্রার্থী। দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে ৪জন আওয়ামী লীগের, ১জন বিএনপির।

এই ৯জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন সদর উপজেলার মোল্লাপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবদুছ সুবহান, কুরবানগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী কোহিনুর আলম, মোহনপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সৌদি প্রবাসী মো. মঈন উল হক; দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পূর্ববীরগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বেলজিয়াম প্রবাসী মো. রিয়াজুল ইসলাম রাইজুল, পূর্বপাগলা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মাসুক মিয়া, শিমুলবাঁক ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী শাহীনুর রহমান; দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু হেনা আজিজ, পান্ডারগাঁও ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী হুমায়ূন কবীর, একই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী সৌদি প্রবাসী ধন মিয়া।

বয়সে তরুণ আবু হেনা আজিজ সপরিবারে যুুক্তরাজ্যে থাকেন। দেশে নিয়মিত আসা-যাওয়া তাঁর। আজিজ অবশ্য গত নির্বাচনেও মান্নারগাঁও ইউনিয়নে একই পদে প্রার্থী ছিলেন। জয়ী প্রার্থীর চেয়ে ৩৫ ভোট কম পেয়ে পরাজিত হন তিনি। আবু হেনা আজিজ জানান, তিনি বেশ কয়েক বছর ধরে তাঁর মা-বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত ‘ইলিয়াস-মমতাজ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট’র উদ্যোগে এলাকায় বিভিন্নভাবে উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতা করছেন। প্রতি বছর এলাকার ৩০জন শিক্ষার্থীকে নতুন পোষাক ও শিক্ষাসামগ্রী দেন। তিনি বলেন,‘এলাকার মানুষই চেয়েছেন এবারও যেন আমি প্রার্থী হই। গতবার অল্প ভোটে হেরেছিলাম, এবার জয়ী হবো আশা করি।’

মানুষের জন্য কিছু করার মানসিকতা থেকেই প্রার্থী হয়েছেন কুরবাননগর ইউপির আওয়ামী লীগের প্রার্থী কোহিনুর আলম। তিনি বলেন,‘প্রবাসে আছি নিজের জন্য। এলাকার জন্য কাজ করতে হলে মানুষের কাছাকাছি থাকতে হবে। আমার এলাকাটি শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগসহ নানা দিক থেকে অবহেলিত। আমি এই অবস্থার পরিবর্তন চাই। দেশে-বিদেশে থেকে যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি, মানুষের উন্নয়নে সেটি কাজে লাগাতে চাই।’

পুর্ববীরগাঁও ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলজিয়াম প্রবাসী রিয়াজুল ইসলাম গত ইউপি নির্বাচনেও একই পদে প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু জিততে পারেননি। বেলজিয়ামের আরাম-আয়েশ এবং সামাজিক নিরাপত্তার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বুঝতেই পারছেন আমি কোথায় আছি। তার পরও নাড়ির টানে দেশে আসি। এলাকার মানুষের দুঃখ-কষ্ট আমাকে পীড়া দেয়। আমি মানুষের মুখে হাসি দেখতে চাই, তাঁদের জন্য কাজ করতে চাই। তাই প্রার্থী হয়েছি।’
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মোল্লাপাড়া ইউনিয়নের আওয়াম লীগের প্রার্থী আবদুছ সুবহান বলেন,‘লন্ডনে থাখলে কিতা অইব, দেশের লাগি মন খান্দে। যারা ভোটে পাস খরইন তারা টিআর-কাবিখা খাইবার লাগি পাগল। কাজের কাজ কোনতা খরইন না। আমি চেয়ারম্যান অইলে মানুষের লাগি, এলাকার উন্নয়নের লাগি কাজ করমু, অউটাই বোঝাইরাম।’

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের সুনামগঞ্জ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহ আবু নাসের বলেন, প্রার্থীদের মধ্যে কে দেশি আর কে প্রবাসী এটার চেয়ে বড় হলো যোগ্যতা। প্রবাসী প্রার্থীদের নিয়ে ভোটারদের মধ্যে আলাদা কৌতুহল থাকতে পারে, তবে ভোট দেখেশুনে যোগ্য প্রার্থীকেই দেওয়া উচিত।
সুনামগঞ্জের এই তিন উপজেলার ২৬টি ইউপিতে আগামি ২৩এপ্রিল ভোটগ্রহণ হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: