সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটের কুয়ারপারে সংঘর্ষের ঘটনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বিএনপির ২৮ জনের নামোল্লেখ করে পুলিশের মামলা

daily sylhet mamlaস্টাফ রিপোর্টার::
নগরীর কুয়ারপারে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে কোতোয়ালী থানার ওসি ও দুই এসআই’র বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর এবার পুলিশ বাদি হয়ে থানায় মামলা করেছে। কোতোয়ালী থানার এসআই ফজলে আজিম পাটোয়ারী বাদি হয়ে গত সোমবার রাতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বিএনপির ২৮ জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৪০/৫০ জনকে আসামী করে এ মামলাটি দায়ের করেন।

আসামীরা হচ্ছেন- স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লালাদিঘীরপারের মৃত শামসু মিয়ার ছেলে শাহজাহান আজীজ (৩২), মৃত হামই মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর (৩৬), রায়নগর রাজবাড়ি বসুন্ধরা ৪৭ এর মৃত আবদুল ওয়াহিদের ছেলে মনজুরুল ইসলাম মঞ্জু (৩৩), লালাদিঘীর উত্তর পারের কলকাকলী-৫২ এর মৃত রাখাল দেবের ছেলে স্বপন দেব (৩৬), মিরাবাজার সেবক-১২ এর মৃত উসমান আলীর ছেলে সাজ্জাদুল হক (২৮), মোগলাবাজার থানার গোয়ালগাঁও মোহাম্মদপুর গ্রামের মৃত জিতু মিয়ার ছেলে জুনায়েদ আহমদ জুনেদ (৩১), লালাদিঘীর উত্তরপারের মৃত কমলকান্তি দে’র ছেলে সজল কান্তি দে (২২), ভাঙাটিকর নবীন-৩ বাসার মৃত ননী গোপাল দে’র ছেলে পিযুষ কান্তি দে (৩৪), দাড়িয়াপারার বেন্টু করের ছেলে সম্রাট (৩২), শেখঘাট কলাপাড়ার মাসুদ প্রকাশ কানা মাসুদ, বিএনপি নেতা কুয়ারপার ১০০ নম্বর বাসার মৃত আবদুস সালামের ছেলে মহানগর ছাত্রদলের সাবেক কোষাধ্যক্ষ আবদুস সামাদ তুহেল (৩৬), শেখঘাট শুভেচ্ছা-১০৫ এর ফজলুর রহমান ফজুর ছেলে ইমতিয়াজ আহমদ হাকিম (৩২), লালাদিঘীর পশ্চিমপাড়ের ইর্শাদ মিয়ার ছেলে আবদুল মনাফ (২৮) ও এনাম (২৬), লালাদিঘীরপার ৭০ কলকাকলীর মৃত গাজীউল্লার ছেলে আবদুস সালাম (৩৩), তালতলার মমিনুল হক রাহি (৩২), কুয়ারপার ইঙ্গুলাল রোডের মৃত মহরম আলীর ছেলে পিচ্ছি শাকিল (২২), ইঙ্গুলাল রোডের সুজেল আহমদ জনি (২৫), মখন মিয়ার ছেলে লাহিন আহমদ ৪০), ইঙ্গুলাল রোডের ৯ নম্বর বাসার মৃত ময়না মিয়ার ছেলে আবদুল ওয়াহাব কাইয়ূম (৩৫), কুয়ারপারের মৃত হান্নান মিয়ার ছেলে মির্জা রামিম (৩২), কুয়ারপারের বিপ্লব, আলম, লালাদিঘীরপারের লিপন, ইঙ্গুলাল রোডের লিটন (৩২) মোগলটুলার নিশাদ মিয়ার ছেলে পারভেজ (৩০), শেখঘাট শুভেচ্ছা ১৩২ নম্বর বাসার মৃত ইসহাক মিয়ার ছেলে মো. নিজাম (৩৪) ও কুয়ারপারের মৃত নান্না পীরের ছেলে রানা (৩০)।

উল্লেখ্য, লালাদিঘীরপার এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আফসার আজিজ ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর রকিবুল ইসলাম ঝলক সমর্থিত বিএনপি নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১৩ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। এর আগে গত সোমবার কুয়ারপারে স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী স্বপন দেবকে আটক করে চাঁদা দাবি এবং মারধরের অভিযোগ এনে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মনজুরুল ইসলাম মজনু বাদি হয়ে আদালতে কোতোয়ালী থানার ওসি ও দুই এসআই’র বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: