সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৪০ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আইএস দমনে দানবাকৃতির বি-৫২ বিমান পাঠালো যুক্তরাষ্ট্র

139602_1আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরাক ও সিরিয়া অঞ্চলে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস দমনে অভিযান আরো কার্যকর করতে এবার পরমাণু অস্ত্রবহনে সক্ষম দানবাকৃতির বি-৫২ বোমারু বিমান পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

স্নায়ুযুদ্ধের সময়কার এ বোমারু বিমানটি শনিবার কাতারের মধ্য দিয়ে ইরাক ও সিরিয়ার আকাশে পাঠানো হয়। যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর কেন্দ্রীয় কমান্ডের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল চার্লস ব্রাউনের বরাত দিয়ে রবিবার বার্তা সংস্থা এপি এ খবর দিয়েছে।

চার্লস ব্রাউন বলেন, দৈতাকৃতির এই বোমারু বিমান আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইরত পশ্চিমা জোট বাহিনীর আকাশপথের আক্রমণের শক্তিকে আরো বৃদ্ধি করবে।
আফগানিস্তানে পশ্চিমাদের যুদ্ধের সময় ২০০৬ সালে সবশেষ উড়েছিল এই বি-৫২। তারপর থেকে এটি সৌদি আরবে যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিতে রাখা হয়। শনিবার বোমারু বিমানটিকে পাঠানো হলো সিরিয়া-ইরাকের আকাশসীমায়।

ঠিক কতটি বি-৫২ পাঠানো হয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। এপি বলছে, বি-৫২ এর মতো দানবসদৃশ অত্যাধুনিক বোমারু বিমান ইরাক-সিরিয়ায় পাঠানোর অর্থ আইএসের সাথে যুদ্ধে নতুন কোনো কৌশল নিয়ে এগোচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

আসুন জেনে নেয়া যাক বি-৫২ বিমানের কিছু চমকপ্রদ তথ্য:
যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘপাল্লার বি-৫২ বিমানটি শীতলযুদ্ধের সময় পরমাণু হামলা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে রক্ষায় ব্যবহৃত হয়েছে। উত্তর ভিয়েতনামে বোমা হামলায়ও এটি ব্যবহার করা হয়।

১৯৯১ সালে ইরাক যুদ্ধে ৪০ ভাগ হামলা হয় এই বিমানটি দিয়ে। এটি আকাশেই জ্বালানি নিতে সক্ষম। ক্রজ ক্ষেপণান্ত্রের পাশাপাশি বোমা হামলায়ও এটি ব্যবহৃত হয়।

বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে গিয়ে এটি হামলায় সক্ষম। উপসাগরীয় যুদ্ধের সময় এটি যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানার বার্কসডেল সামরিক ঘাঁটি থেকে উড়ে গিয়ে ইরাকে হামলা শেষে ৩৫ ঘণ্টার উড্ডয়নের পর আবার নিজ ঘাঁটিতে ফিরে এসেছে।

১৯৯৯ সালে যুগোস্লাভিয়ায় বিমান হামলা এবং ২০০১ ও ২০০২ সালে আফগানিস্তানে আল-কায়েদা ও তালেবানের ওপর হামলায় এটি অংশ নেয়।

প্রথম মোতায়েন: ১৯৫৫ সালে
দৈর্ঘ্য: ১৫৯ ফুট ৪ ইঞ্চি
পাখার দৈর্ঘ্য: ১৮৫ ফুট
গতি: ঘণ্টায় ১০৪৫.৮৫ কিলোমিটার
পাল্লা: ১৪,১৫৯ কিলোমিটার (একবার জ্বালানি নিয়েই)
সমরাস্ত্র বহন ক্ষমতা: ৭০,০০০ পাউন্ড (৩১,৫০০ কেজি)
ক্রুর সংখ্যা: ৫ জন
মোট বিমান: ৫৮টি সক্রিয়, ১৮টি রিজার্ভ
দাম: ৮ কোটি ৪০ লাখ ডলার (৬৭০ কোটি টাকা)

সূত্র: এপি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: