সর্বশেষ আপডেট : ৪০ মিনিট ৩ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নাজিমুদ্দিনের খুনিরা প্রশিক্ষিত ও পেশাদার : পুলিশ

18নিউজ ডেস্ক : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ছাত্র ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নাজিমুদ্দিন সামাদকে (২৮) পুরান ঢাকার সূত্রাপুরে একরামপুর মোড় এলাকায় বুধবার রাতে দুর্বৃত্তরা খুন করে পালিয়ে যায়। পুলিশের ধারণা নাজিমুদ্দিনকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। কারণ তার মাথার ডান দিক থেকে খুলি মাথা থেকে আলাদা হয়ে গেছে।
সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ঘটনাস্থলে রক্তের পাশাপাশি সেখানে মাথার মগজ পড়ে আছে। তবে যেভাবেই খুন করা হোক না কেন খুনিরা প্রশিক্ষিত ও পেশাদার। পরিকল্পিতভাবে খুবই দ্রুততম সময়ে খুন করে তারা পালিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী, তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও গোয়েন্দাদের কাছ থেকে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে।

সূত্রাপুর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আব্দুল আওয়াল জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে সংবাদ পেয়ে বুধবার রাত ৯টার দিকে একরামপুর মোড় এলাকার রাস্তার পাশে পড়ে থাকা লাশটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি জানান, বুধবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে ৯টার দিকে তিন-চারজন যুবক এসে নাজিমুদ্দিনকে খুন করে পালিয়ে যায়। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে নাজিমুদ্দিনের এক সহপাঠী জানান, তিনি অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ছিলেন। আওয়ামী লীগ সমর্থক হলেও লেখার মাধ্যমে বিভিন্ন সময় তিনি দলের সমালোচনা করতে ছাড়েননি। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমসাময়িক বিভিন্ন ইস্যু, তনু হত্যাকাণ্ড নিয়েও নিজের মত প্রকাশ করেন। ঘটনার সময় নাজিমুদ্দিনের সঙ্গে সোহেল ও নজিব নামে দুইজন বন্ধু ছিলেন। কিন্তু দুর্বৃত্তরা এসে নাজিমুদ্দিনকে আক্রমণ করলে সোহেল ভয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। নজিবও দুর্বৃত্তদের আক্রমণের শিকার হন। কিন্তু পরে তিনিও পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।

নাজিমুদ্দিন সামাদের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে জানা যায়, সর্বশেষ মঙ্গলবার রাত ৯টা ১০ মিনিটে একটি পোস্ট দিয়েছিলেন। সেখানে তিনি লিখেছিলেন : ‘সরকার, এবার একটু নড়েচড়ে বসো বাবা। দেশের যা অবস্থা, আইনশৃঙ্খলার যা অবনতি তাতে গদিতে বেশিদিন থাকা সম্ভব হবে না। জনরোষ বলে একটা কথা আছে। এটার চূড়ান্ত পরিণতি দেখতে না চাইলে এক্ষুণি কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া দরকার সকল অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে। নতুবা দিন ফুরিয়ে আসবে দ্রুত।’

নিহত নাজিমুদ্দিন জবির আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন কোর্সের স্নাতকোত্তর শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। লক্ষ্মীবাজারের কাছের একটি মেসে থাকতেন তিনি। তার বাড়ি সিলেটের বিয়ানীবাজারে। তিনি বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের সিলেট জেলা শাখার তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। নাজিমুদ্দিন সামাদের ওপর আক্রমণের সময় তার সঙ্গে থাকা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সাউথ ইস্টের শিক্ষার্থী নাজিবের ওপরও আক্রমণ হয়। সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে যান তিনি।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট ও গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, মাথায় যেভাবে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে তাতে বলাই যায় যে খুনিরা প্রশিক্ষিত ও পেশাদার। খুবই কম সময়ের মধ্যে স্থানীয়রা বুঝে উঠার আগেই খুন করে তারা পালিয়ে যায়। মাত্র একটি গুলিতেই নাজিমুদ্দিনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছে তারা। শুধু তাই নয় এত তাড়াহুড়ার মধ্যে গুলি ঠিক মাথায়ই করা হয়েছে। তবে সম্ভবত ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দেওয়ার ফলে মাথার ডান পাশের খুলি আলাদা হয়েছে।

সূত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তপন কুমার সাহা জানান, হত্যাকাণ্ডের ধরন দেখে মনে হচ্ছে খুনিরা প্রফেশনাল ও পরিকল্পিতভাবেই হত্যাকাণ্ডটি করা হয়েছে। তার মাথার খুলি ডান পাশ থেকে আলাদা হয়ে গেছে। তাকে গুলি করে নাকি কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে তা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন আসলে বলা যাবে। এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি। সিলেট থেকে তার পরিবারের সদস্যরা ঢাকায় আসলেই মামলা করা হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঘটনাস্থলের এক সেলুনের কর্মচারী জানান, আমরা শুধু একটি গুলির শব্দ শুনেছি। শোনার পর আতংকে সেলুনে যারা ছিলাম, যে যেদিকে পেরেছি দৌড় দিয়েছি।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উপ-কমিশনার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, ধারণা করা হচ্ছে হত্যাকাণ্ডটি পরিকল্পিত ও প্রতিশোধের জের ধরে। ঘটনাস্থল থেকে গুলির এক রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে শনাক্ত কিংবা আটক করা যায়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: