সর্বশেষ আপডেট : ৩১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের কোটি টাকা আত্মসাৎ : এবার দুদকের জালে সালাহ উদ্দিন, হোসেন কারাগারে

066c09cd-6b42-456f-9a92-b9019df0abe3নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটে গ্রাহকের অর্থ আত্মসাতের মামলায় অপর আসামি সালাহ উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে দুদক। আজ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক সিলেট নগরীর নয়াসড়ক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা দুদক সিলেট জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-সহকারি পরিচালক মো. আশরাফ উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছে, এখন সালাহ উদ্দিনকে দুদক অফিসে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

ব্যাংকের সাড়ে ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তার বিরুদ্ধেও মামলা ছিল। দুর্নীতি দমন কমিশনের তদন্তে তাদের বিরুদ্ধে ১ কোটি ১৯ লাখ আত্মসাতের প্রমাণ বেরিয়ে এসেছে।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিলেট নগরী থেকে ব্যাংকের সাবেক ফার্স্ট এসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট হোসেন আহমদ (৪০) কে গ্রেফতার করা হয়। রাত সাড়ে ৮টায় তাকে এসএমপির কোতোয়ালি মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আজ বুধবার দুপুরে হোসেন আহমদকে সিলেটের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হলে ৭দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা দুদক সিলেট জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-সহকারি পরিচালক মো. আশরাফ উদ্দিন। তবে, রিমান্ডের শুনানি হয়নি। আগামী রোববার রিমান্ড আবেদনের শুনানি হবে। হোসেন আহমদকে বেলা দেড়টার দিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

দুদক সিলেটের পরিচালক ড. মো. আবুল হাসান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড বিশ্বনাথ শাখার সাবেক ম্যানেজার হোসেন আহমদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে, একই মামলার অন্য আসামি ব্যাংকের ক্যাশিয়ার সালাহ উদ্দিন আহমদ পলাতক ছিলেন।

4cffbac5-ab2a-4694-a10e-3d6c4a5169dfতাদের বিরুদ্ধে ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলা হলেও তদন্তে বিভিন্ন গ্রাহকের ১ কোটি ১৯ লাখ টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া গেছে। আরও প্রমাণ পাওয়া যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

গ্রেফতার হোসেন আহমদ মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলা সালিটিকা গ্রামের মৃত আবদুল ওয়াদুদের ছেলে। আর সালাহ উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মৃত আব্দুল ওয়াদূদ এর পুত্র।

দুদক সিলেট অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৫ সালের মে মাস পর্যন্ত স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক বিশ্বনাথ শাখায় দায়িত্ব পালনকালে হোসেন আহমদ গ্রাহকদের টাকা ভাউচারের মাধ্যমে লেনদেন করেন। কিন্তু লেনদেনের হিসাব ব্যাংকের হিসাব বিবরণীতে যোগ করেননি।

গতবছরের ৯ জুলাই মাসে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, সিলেট আঞ্চলিক শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট এডিপি পারভেজ মাহফুজ বাদি হয়ে হোসেন আহমদ ও সালাহ উদ্দিনের বিরুদ্ধে সাড়ে ১৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বিশ্বনাথ থানায় মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-৬/৯/৭/১৬)।

একপর্যায়ে ওই মামলার তদন্তভার দুদকের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তদন্তে কেচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বেরিয়ে আসে। তদন্তে দুদক ১ কোটি ১৯ লাখ টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পায়।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: