সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ফেলে দেয়া বোতলের ওপর ভাসছে দ্বীপ

full_1470813966_1459764649ডেইলি সিলেট ডেস্ক: প্রতিনিয়ত আমরা কোনো না কোনো ভাবে প্লাস্টিকের বোতল ব্যবহার করি এবং সেগুলো ফেলে দিই। এই ফেলে দেয়া বোতল সাগারে স্থুপ আকারে অনেক জমে রয়েছে। আর এটা কোথাও কোথাও এত বেশী যে, সেগুলো চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এই বোতলের স্থুপের উপর যদি একটি আস্ত দ্বীপ ভেসে থাকে তাহলে কেমন হবে!

অসম্ভব শোনালেও তা সম্ভব করেছেন বৃটিশ এক শিল্পী। মেক্সিকোর কানকুনে তৈরি করেছেন জয়ক্সি নামে একটি দ্বীপ। ছোট্ট একটি দ্বীপ। যেন পানির ওপর ভাসমান এক টুকরো স্বর্গ।

মেক্সিকোর কানকুন রিসর্টের কাছেই দ্বীপটি। কিন্তু দ্বীপটি ভারী অদ্ভূত। গাছপালা, ছোট ছোট ঘরসহ এটি আসলে ভাসছে পরিত্যক্ত পানির বোতলের ওপর। সৃষ্টিশীল শিল্পী রিচার্ড সোয়ার স্বপ্নের বাস্তবায়ন এই দ্বীপ।

ব্রিটিশ শিল্পী এবং দ্বীপের মালিক, রিচার্ড সোয়া বললেন, ‘এটা আমি বানিয়েছি একটু প্রশান্তির জন্য। পরিত্যাক্ত জিনিস ব্যবহার করে বেঁচে থাকার সুন্দর একটি উপায় হিসেবে। পৃথিবীকে দেখাতে চাই যে প্রাকৃতিক উপায়ে সব ধরনের আরাম সহ কত সুন্দর করে আমরা বাঁচতে পারি।’

২০০৭ সালে কাজ শুরু করেন সোয়া। ফেলে দেওয়া প্লাস্টিকের বোতল জমা করে নেটের ব্যাগের মধ্যে পুরে জড়ো করেন, একটি বড় প্লাইউডকে এগুলোর ওপর ভাসিয়ে রাখার জন্য। এরপর মাটি ফেলে ভরে দেন প্লাইউডের ওপরের অংশ।
অসংখ্য ম্যানগ্রোভ উদ্ভিদ শোভা বাড়াচ্ছে দ্বীপটির। আছে সৌর বিদ্যুৎ, পানিসহ থাকার যাবতীয় আয়োজন। ২০০৮ সাল থেকে এই জয়ক্সি দ্বীপটি পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে।

দ্বীপটিতে বেড়াতে আসা একজন পর্যটক বললেন, ‘বিষয়টি খুবই রোমাঞ্চকর। আমি এরকম ভাসমান কৃত্রিম দ্বীপ আগে কখনো দেখিনি। আমার খুবই ভালো লাগছে।’

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: