সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দেশে ২৪টি জঙ্গি সংগঠন নাশকতায় লিপ্ত

jongi-bangladeshবশির আহমদ জুয়েল:: ১৯৭১ সালে পুর্ব পুরুষদের রক্ত আর জীবনের বিনিময়ে পাওয়া আজকের বাংলাদেশ। বর্তমানেও দেশের মাটি বার বার রক্তে লাল হচ্ছে। রাজনৈতিক আন্দোলনে পুর্বে হত্যাকান্ড ঘটলেও তা ছিল খুবই সীমিত। কিন্তু ইদানিং স্বাধীন বাংলাদেশে ঘোষণা দিয়ে হত্যাকান্ড ঘটাচ্ছে। কারা করছে এসব অপকর্ম? এসব প্রশ্নের জবাব সন্ধানে মিডয়া ব্যক্তিত্বরাও মাঠে রয়েছেন সরব। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যানযায়ী বাংলাদেশ ২৪টি জঙ্গি সংগঠন রয়েছে। যার মধ্যে সরকার নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে চারটিকে।  কমপক্ষে এক হাজারের মত সদস্য আত্মগোপনে থেকে নাশকতামূলক তৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে বলে একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার কাছে তথ্য রয়েছে। গোয়েন্দা সংস্থার তালিকাভুক্ত নিষিদ্ধ চারটি জঙ্গি সংগঠন হচ্ছে- হরকাতুল জেহাদ, জেএমবি, হিজবুত তাহরীর বাংলাদেশ ও আনসারুল্লাহ বাংলাটিম। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক একাধিক এনজিও আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনের মদদে আরও কমপক্ষে ২০টি সংগঠন তৎপর রয়েছে। এ তথ্যটি সরকারের গোয়েন্দা সংস্থার হলেও অন্য জঙ্গি সংগঠনকে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে না কেনো? জানি এর জবাব কেউ দিবেন না। তারপরও বলা উচিৎ যে, অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনগুলো হচ্ছে- ওয়ারত ইসলামিক ফ্রন্ট, জামায়াত আস সাদত, আল খিদমত, হরকত এ ইসলাম আল জিহাদ, মুসলিম মিলাত শরিয়া কাউন্সিল, ওয়ার্ল্ড ইসলামিক ফ্রন্ট ফর জিহাদ, জইশ-ই-মোহাম্মদ, কালেমার দাওয়াত, ইসলামী দাওয়াতি কাফেলা, হিজবুল্লাহ ইসলামী সমাজ, হরকাত উল মুজাহিদীন বাংলাদেশ, নুসরাতুল মুসলেমিন, আল হারাত আল ইসলামিয়া, জামায়তুল ফালাইয়া, তাওহিদি জনতা, বিশ্ব ইসলামী ফ্রন্ট, জুমাতুল আল সাদাত, শাহাদাত-ই-নবুওয়াত, জামাত-ই-ইয়াহিয়া আল তুরাত, জইশে মোস্তফা বাংলাদেশ ও আল জিহাদ বাংলাদেশ।
তালিকাভুক্ত এ ২৪টি সংগঠনের মধ্যে বেশ কয়েকটি সংগঠন আন্তর্জাতিকভাবেও নিষিদ্ধ। এরমধ্যে কয়েকটি সংগঠনের শীর্ষ ব্যক্তি দু-একবার গোপনে বাংলাদেশ সফর করেছেন বলে তথ্য পেয়েছেন গোয়েন্দারা।
১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতাকারী জামাত ইসলামের সহযোগী সংগঠন ছাত্র শিবিরের উল্লেখযোগ্য একটি অংশ উগ্রসন্ত্রাসবাদী তৎপরতায় লিপ্ত থাকার খবরও আছে গোয়েন্দাদের কাছে।
দেশে অরাজকতা ও নাশকতামূলক কর্মকা- পরিচালনা করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের লক্ষ্যে সংগঠনগুলো অপতৎপরতা চালাচ্ছে বলে মনে করছেন গোয়েন্দারা। গোয়েন্দা সূত্রের দাবি, উল্লিখিত জঙ্গিদের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যথেষ্ট তৎপর রয়েছে বলে তারা দাবী করছে। বাস্তবে এর ফলাফল শুন্যতেই বিরাজ করছে। এই মৌলবাদ ও জঙ্গিবাদ চক্রের বিরুদ্ধে যারাই কলম ধরছে তাদেরকেই নাস্তিক বানাচ্ছে। সুযোগ পাইলেই আক্রমণ করছে আর হত্যাও করছে।
পুলিশ বাহিনীর দাবী অভিযানের মুখে জঙ্গিরা শুধু স্থান পরিবর্তন করছে। যেখানেই তারা সংগঠিত হওয়ার চেষ্টা করছে সেখানেই হানা দিচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।
সূত্রের দাবি, এসব সংগঠনের কিছু সদস্যকে ইতোপূর্বে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গ্রেফতার করেছে। কিন্তু আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে তারা আত্মগোপনে চলে গেছে। সূত্রমতে, মধ্যপ্রাচ্যের একাধিক এনজিও জঙ্গি সংগঠনের আর্থিক সহায়তা ও মদদপুষ্ট এ দেশি জঙ্গিরা তাদের মিশন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রাণপণ চেষ্টা চালাচ্ছে। কিন্তু ভয়ানক কথা হচ্ছে যে, একাধিক জঙ্গি সংগঠনে রয়েছে সুইসাইডাল স্কোয়াড; যারা নিজের জীবন দিয়ে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে। আর যারা আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয় তাদের ঠেকানো কঠিন হয়ে দাঁড়ায়।
সূত্রের দাবি, স্বল্পোন্নত এই বাংলাদেশতো দূরের কথা ইন্টারন্যাশনাল কাউন্টার টেরোরিজম প্রতিষ্ঠাতা তথা উন্নত দেশগুলোতেও জঙ্গিদের সুইসাইডাল স্কোয়াডের সদস্যরা হামলে পড়ে কেড়ে নিচ্ছে শত শত প্রাণ। এতে আইনশৃংখলা বাহিনীও যেন অসহায়। কাজেই মিডিয়াকে এ ব্যাপারে আরও সোচ্চার হতে হবে। দেশের বৃহত্তর স্বার্থের কথা বিবেচনা করে মত পার্থক্য ভুলে রাজনৈতিক সমঝোতাটাও জরুরি। এছাড়া সমাজে সচেতন অংশসহ দেশের সর্বস্তরের মানুষের চোখ-কান খোলা রাখা উচিত। মোটকথা আত্মঘাতী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে পারলেই দেশ থেকে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা সম্ভব হবে। অন্যতায় স্বাধীন এ দেশটি জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত হতে সময় লাগবে না।
লেখকঃ বশির আহমদ জুয়েল, ব্লগার, ছড়াকার ও অনলাইন এক্টিভিস্ট।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: