সর্বশেষ আপডেট : ১৪ মিনিট ১৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘হাত পা বাইন্ধে পেছনের সিটে নিয়ে গণধর্ষণ করা হয়েছে’

160311110211_bangladesh_rape_640x360_bbc_nocreditনিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলায় চলন্ত বাসে এক পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ঐ বাসটির চালকসহ তিনজনকে আটক করে আজ আদালতে পাঠানো হলে, আদালত চালক ও তার একজন সহকারীর তিনদিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন। খবর-বিবিসি’র।
টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী থেকে ঢাকা-গামী বিনিময় পরিবহনের একটি বাসে করে মেয়েটি গাজীপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় শুক্রবার খুব সকালে।
মেয়েটির স্বামী বিবিসি বাংলাকে বলেন সে সময় তার স্ত্রী ছিলেন ঐ বাসের একমাত্র যাত্রী।
তিনি বলেছেন, তার স্ত্রীর ভাষ্য অনুযায়ী কিছু দূর যাওয়ার পর বাসটির চালক ও দুইজন সহকারী বাসের দরজা-জানলা বন্ধ করে দিয়ে মেয়েটির হাত পা বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে মধুপুর- ময়মনসিংহ সড়কে মেয়েটিকে ফেলে রেখে চলে যায়।
”গাড়ির ভেতরে চারজন লোক ছিল – স্টাফ। তারা আমার ওয়াইফকে নিয়ে গাড়িটা টান দিসে। ৫/৭ মিনিট পর গ্লাস আর গেট আটকে তাকে টর্চারিং করে, হাত পা বাইন্ধে তাকে পেছনের সিটে নিয়ে গণধর্ষণ করা হয়েছে,” জানান মেয়েটির স্বামী। পরে স্থানীয়রা মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।
এই ঘটনায় মেয়েটির স্বামী মামলা করার চেষ্টা করলে বাসের চালক পক্ষ থেকে তার সাথে সমঝোতার করার চেষ্টা করা হয় বলে জানান তিনি।পরে বাসের চালক ও দুইজন সহকারী, সমঝোতা করার চেষ্টা করেছেন এমন আর ছয়জনসহ মোট নয় জনের নামে মামলা হয়েছে।
টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুজিবর রহমান বিবিসিকে বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে বাসের চালক ও দুইজন সহকারীকে আটক করেছেন তারা।
”তিনজন হল রেপিস্ট, আর ছয়জন এই ঘটনায় তাদের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করেছে,” বলেন রহমান।
এদিকে গতকাল শনিবার এই তিনজনকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড নেয়ার আবেদন করা হয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হাসান মোস্তফা বলছিলেন পাঁচ দিনের আবেদন করলে আদালত চালক ও একজন সহকারীকে তিন দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন মঞ্জুর করেছেন।
”তিনজন আসামীর মধ্যে একজন বাসের চালক, আরেকজন বাসের সুপারভাইজার। এদের আদালতে সোপর্দ করে পাঁচদিনের রিমান্ড চেয়েছিলাম। বিজ্ঞ আদালত তিনদিনের রিম্যান্ড মঞ্জুর করেছেন। অরেকজন বিজ্ঞ আদালতের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদানের জন্য রাজি হয়েছে।”
এর আগে গতবছরের মে মাসে রাজধানী ঢাকায় এক তরুণীকে জোর করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে চলন্ত গাড়িতে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে।
আর ২০১৩ সালে চলন্ত বাসে পোশাক শ্রমিকের ধর্ষণ মামলায় বাস চালক ও তার সহকারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত।

fakhrul_islam

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: