সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ১৭ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিয়ানীবাজারে আ’লীগ নেতা কর্তৃক শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় শিক্ষার্থী ও পুলিশে মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০

2. daily sylhet sanggarsho newsবিয়ানীবাজার প্রতিনিধি::
সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নে স্কুল শিক্ষকদের গালিগালাজ ও লাঞ্ছিত করার ঘটনায় সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ও পূর্ব মুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালেয়র শিক্ষার্থী এবং এলাকাবাসীর মধ্যে দিনভর দফায় দফায় সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। সংঘর্ষে শিক্ষার্থী, এলাকাবাসী পুলিশসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। এ সময় পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। পুলিশের গুলিতে এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত দাঙ্গা পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মুড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম কর্তৃক পূর্ব মুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালেয়র শিক্ষকদেরকে গালিগালাজ ও লাঞ্চিত করেন। শিক্ষক লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনার খবর গত বৃহস্পতিবার প্রকাশ পেলে স্কুলের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে ফেঁটে পড়েন এবং ক্যাম্পাসে মিছিল করে বিয়ানীবাজার-সারপার সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে স্কুল কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা দিয়ে তাৎক্ষণিক স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি ও এলাকার মুরব্বীগণ জরুরি বৈঠকে বসেন। বৈঠকে সাত সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে শনিবার বিষয়টির সন্তোষ জনক সমাধানের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় অবরোধ তোলে ফেলে।

শনিবার সকাল ১১টায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ স্কুল ম্যানেজিং কমিটি ও এলাকাবাসী বৈঠকে বসেন। দীর্ঘ সময় বৈঠক শেষে সভায় সীদ্ধান্ত হয় বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীর সামনে সাবেক চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম দোষ শিকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে। বিষয়টি আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম জানানো হলে তিনি মানতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এ সংবাদটি শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা লাঠি সোটা নিয়ে স্কুল ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিয়ানীবাজার-সারপার সড়ক প্রায় দুই ঘন্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা চেষ্টা করলে ব্যর্থ হয়ে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ করে বিক্ষোভ কারীরা ইট পাটকেল ছুঁড়ে। এরপর পুলিশও মারমুখি অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ কারীদের লক্ষ করে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলিছুড়ি। পুলিশের গুলিতে এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) আবুল বাশার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: