সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

চরম প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপল এবং স্যামসাংয়ের দোস্তি!

apple-samsung.jpegতথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক ::
ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রযুক্তি জগতের চরম প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপল এবং স্যামসাং এ দুটি প্রতিষ্ঠান ‘অদম্য জুটি’ তৈরি করতে যাচ্ছে। প্রযুক্তি বিশ্বে এ দুটি প্রতিষ্ঠানের দ্বন্দ্বের কথা কারওরই অজানা নয়। অবাক করা বিষয় হচ্ছে— এবারে এই দ্বন্দ্ব মিটিয়ে দোস্তিই করছে এই দুটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা।

অ্যাপলের সাবেক প্রধান নির্বাহী স্টিভ জবস স্যামসাং ও অ্যাপলের মধ্যে আকর্ষণীয় সরবরাহ চুক্তি বাতিল করে আইনি যুদ্ধ শুরু করলে দুটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সম্পর্ক খারাপ পর্যায়ে চলে গিয়েছিল।

২০১৪ সালের আগস্ট মাস থেকে অ্যাপলের বর্তমান প্রধান নির্বাহী টিম কুক স্যামসাংয়ের সঙ্গে আবার সম্পর্ক পুনঃস্থাপন করতে উদ্যোগী হন এবং পেটেন্ট যুদ্ধ শেষ করতে সম্মত হন। এ ছাড়াও নতুন পণ্য তৈরিতে আবার দুটি প্রতিষ্ঠান একসঙ্গে কাজ করতে সম্মত হয়।

অ্যাপলের পরবর্তী আইফোনের জন্য প্রধান চিপ বা প্রসেসর তৈরি করবে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। এ ছাড়াও অ্যাপলের অন্যান্য পণ্যের জন্য ডিসপ্লে তৈরির কাজও করবে স্যামসাং। অ্যাপলের জন্য চিপসহ অন্যান্য যন্ত্রাংশ সরবরাহে কাজ করতে বিশাল বিনিয়োগ করার পরিকল্পনাও রয়েছে স্যামসাংয়ের।

অ্যাপলের জন্য নতুন প্ল্যান্ট তৈরি ও যন্ত্রপাতির পেছনে এক হাজার ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার খরচ করবে স্যামসাং। অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের এই জোট থেকে অ্যাপল সবচেয়ে বৃহৎ চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান থেকে উন্নত চিপ সংগ্রহ করতে পারবে। স্যামসাং অ্যাপলের কাছ থেকে নতুন পণ্যের জন্য সবচেয়ে বড় ফরমায়েশ পাবে। এদিকে, এই জোটের ফলে বিপদে পড়বে চিপ নির্মাতা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলো। সবার আগে সমস্যায় পড়বে তাইওয়ানের সেমিকন্ডাক্টার নির্মাতা স্যানডিস্ক।

২৯ এপ্রিল এ বছরের প্রথম প্রান্তিকের আয় ঘোষণা করেছে যাতে তাদের প্রতিটি যন্ত্রাংশের ব্যবসায় বেশি প্রবৃদ্ধি দেখা গেছে। এদিকে, আইফোনের জন্য চিপ নির্মাতা হিসেবে খ্যাত টিএসএমসি তাদের চিপ নির্মাণের খরচ কমিয়ে ফেলার কথা চিন্তা করছে।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়েডবুশ সিকিউরিটিজের বিশ্লেষক বিটসি ভ্যান হিস জানিয়েছেন, ‘চিপের বাজারে দারুণভাবে ফিরে এসেছে স্যামসাং। তারা যে পরিমাণ অবকাঠামো বাড়াতে যাচ্ছে এটা দেখেই বোঝা যায় এ ক্ষেত্রে তারা কী পরিমাণ বিনিয়োগ করছে।’

লিডেনবার্গ থালম্যানের বিশ্লেষক ড্যানিয়েল আমির বলেন, ‘ম্যাক কম্পিউটারের নতুন মডেলগুলোতেও ফ্ল্যাশ ড্রাইভের জন্য অ্যাপল এখন স্যামসাংয়ের ওপর নির্ভর করছে। তাই স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে খেলাটা খুব সহজ কাজ নয়। অ্যাপলের সঙ্গে স্যানডিস্কের মতো আর যারা ব্যবসা করতো সবার ব্যবসা হাতিয়ে নিচ্ছে স্যামসাং।’

গত বছরে স্মার্টফোনের বাজারে অ্যাপলের কাছে বাজার দখলের কিছুটা খোয়ালেও ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশ গ্রাহক হিসেবে শীর্ষে ছিল দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল মার্কিন প্রতিষ্ঠান অ্যাপল।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ডাটা করপোরেশনের (আইডিসি) তথ্য অনুযায়ী, অ্যাপল ও স্যামসাং মিলে স্মার্টফোন বাজারের ৪০ শতাংশের বেশি দখলে রাখে আর গার্টনার বলছে, বিশ্বজুড়ে যত চিপ তৈরি হয় তার ১৭ শতাংশ অ্যাপল ও স্যামসাং ক্রয় করে। তাই এই দুটি প্রতিষ্ঠানের জোট মোটেও অবহেলা করার কিছু নয়।

অ্যাপল-স্যামসাংয়ের জোটে শুধু অ্যাপলের কাছে চিপ সরবরাহের ব্যবসা বন্ধ হওয়া নিয়েই চিন্তিত নয় অন্যান্য চিপ নির্মাতারা। তাদের স্যামসাংকে নিয়েও চিন্তা করতে হচ্ছে। কারণ, স্যামসাং নিজেদের পণ্যে নিজেদের তৈরি যন্ত্রাংশ বেশি ব্যবহার করছে। বর্তমানে গ্যালাক্সি ফোনে স্যামসাংয়ের নিজস্ব প্রসেসর, চিপ, মডেম ও ইমেজ প্রসেসর রয়েছে। এর আগে অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকেও কিছু যন্ত্রাংশ স্যামসাংকে সংগ্রহ করতে হতো। অবশ্য স্যামসাং অনেক আগেই

জানিয়েছে, আমাদের খরচ পোষানোর মতো কারও কাছ থেকে যন্ত্রাংশ কেনার সুবিধা পেলে নিজে থেকে তৈরি করব না। কিন্তু এখন আর সে অবস্থা নেই।
অ্যাপলের পরে স্যানডিস্ক ও কোয়ালকমের তৈরি চিপের বড় ক্রেতা ছিল স্যামসাং। গ্যালাক্সি সিরিজের নতুন দুটি স্মার্টফোনে কোয়ালকমের তৈরি চিপ ব্যবহার বন্ধ করে দিয়েছে স্যামসাং। পরবর্তী গ্যালাক্সি নোটেও কোয়ালকমের চিপ থাকবে না বলেই নিশ্চিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: