সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মরিয়া নেপালিরা লুট করছে ত্রাণ সামগ্রী

full_2046323270_1430455555আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
ভয়াবহ ভূমিকম্পে নেপালে মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার ২০৪ জনে পৌঁছেছে। শুক্রবার দেশটির ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে। সংস্থাটি জানায়, ভূমিকম্পে আহতের সংখ্যা প্রায় ১৪ হাজার। শুক্রবার এএফপির খবরে জানানো হয়, অপ্রতুল ত্রাণের কারণে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে নেপালের ঘরহারা ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষেরা। বাঁচার তাগিদে মরিয়া হয়ে উঠেছে তারা। গতকাল সাংগাচকে ত্রাণ নিয়ে আসা একটি গাড়িতে তারা হামলা চালায়। লুট করে নেয় ত্রাণসামগ্রী।

প্রয়োজনের তুলনায় ত্রাণ সামান্য হওয়ায় এ ধরনের হামলার ঘটনা ঘটছে। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়, ত্রাণ সরবরাহকারী গাড়িগুলোতে একাধিক হামলার ঘটনা ঘটেছে। সাংগাচকে সেভ দ্য চিলড্রেনের ত্রাণবাহী ওই গাড়িতে হামলাকারী দলের মধ্যে ছিলেন সোম বাহাদুর তামাং। তিনি বলেন, ‘আমরা ডাকাত নই। পরিশ্রম করি। সৎ মানুষ।’

কিন্তু পরিস্থিতি তাদের এমনটা করতে বাধ্য করেছে। তিনি বলেন, ‘দেখুন আমরা কীভাবে আছি। ভূমিকম্পের পর প্রায় এক সপ্তাহ পার হয়ে গেছে। কিন্তু এখনো আমরা খোলা আকাশের নিচে। সারা দিন ধরে শিশুরা কাঁদছে। তাদের খাওয়ার মতো দুধ নেই। এ পরিস্থিতিতে আমরা আর কী করতে পারি? ’ নেপালের সেনাবাহিনীর কাছে থাকা তিনটি তাঁবু নিয়ে গেছে ক্ষুব্ধ পুরুষ ও শিশুরা। বৃষ্টিও ত্রাণ সরবরাহে বাধার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। নেপালের সেনা প্রধান জেনারেল গৌরব রানা ত্রাণকাজের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি বলেন, মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। আশঙ্কা করছি মৃতের সংখ্যা ১০-১৫ হাজার হতে পারে।

এএফপি ও বিবিসির খবরে জানানো হয়, নেপালের ভূমিকম্প দুর্গত গ্রামীণ এলাকাগুলোতে ত্রাণ পৌঁছাতে অনেক দেরি হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত অনেক এলাকায় এখনো কোনো ত্রাণ পৌঁছায়নি। এতে প্রচণ্ড ক্ষোভ শুরু হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে আগামী তিন মাসে নেপালের জন্য জরুরি সহায়তা হিসেবে ৪১ কোটি ৫০ লাখ ডলারের সহায়তার আবেদন জানিয়েছে জাতিসংঘ।

নেপালের কিছু দুর্গত এলাকার লোকজন জানিয়েছে, তাদের কাছে এখনো খাবার সামগ্রী বা ওষুধ কিছুই পৌঁছায়নি। বিশেষ করে রাজধানী কাঠমান্ডুর উত্তর-পূর্ব এলাকার গ্রামগুলোতে ত্রাণ না পেয়ে লোকজনের মধ্যে হতাশা ও ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। ওই এলাকায় থাকা একজন সাংবাদিক জানান, সেখানে এমন কোনো ভবন নেই, যা ভূমিকম্পের আঘাত থেকে অক্ষত রয়েছে। ধ্বংসস্তূপের নিচে এখনো অনেক লাশ পড়ে আছে। অথচ সেখানে কোনো সরকারি বা বেসরকারি সংস্থার ত্রাণ কার্যক্রম দেখা যাচ্ছে না।

এভারেস্টে আগামী সপ্তাহে আরোহণ শুরু: বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে আগামী সপ্তাহ থেকে আবার শুরু হবে আরোহণ। নেপালের সরকার গতকাল এ কথা জানিয়েছে। শক্তিশালী ভূমিকম্পে হিমালয়ে তুষারধসে ১৮ জনের মৃত্যুর ঘটনার পর থেকে পর্বতারোহণ বন্ধ রয়েছে।

গত শনিবার নেপালে আঘাত হানে ৭ দশমিক ৮ তীব্রতার শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়। এতে রাজধানী কাঠমান্ডু ও এর আশপাশের এলাকাগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সর্বশেষ সরকারি হিসাব অনুযায়ী, এই ভূমিকম্পের ফলে ছয় হাজার লোকের প্রাণহানির পাশাপাশি অন্তত ১১ হাজার মানুষ আহত হয়েছে। মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা সরকারের।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: