সর্বশেষ আপডেট : ২০ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিটি নির্বাচনে ভোট ডাকাতির প্রতিবাদ করেছে ফিনল্যান্ড বিএনপি

25. BNPজামান সরকার, হেলসিংকি::
ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ ও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে ভোট ডাকাতিতে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ফিনল্যান্ড শাখার নেতৃবৃন্দ । বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মত ২৮ এপ্রিল মঙ্গলবার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আবারও প্রমাণ করলো বর্তমান সরকার ও বিতর্কিত নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোন সুষ্ঠু অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয়।

সোমবার রাত হতে বিভিন্ন কেন্দ্রে নির্বাচনী কর্মকর্তা ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সহায়তায় সরকার দলীয় ক্যাডাররা ব্যালোট পেপারে সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভরে ফেলেছে। ঢাকার বাইরে থেকে হাজার হাজার সন্ত্রাসী এনে নির্বাচন কেন্দ্রে পাহারা বসায় সরকার দলীয় প্রার্থী ও তার ক্যাডাররা। পরের দিন ২৮ এপ্রিল সকাল বেলা সরকারের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও সরকার দলীয় ক্যাডারা পোলিং এজেন্টদের মারপিঠ করে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়। কোন কোন কেন্দ্রে পোলিং এ্যাজেন্টদের গ্রেফতার করেও নিয়ে যায়।

সকাল ১১টা পর্যন্ত কোন সংবাদ কর্মীকে ক্যামেরা সহ নির্বাচন কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়নি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা। নির্বাচনের আগের রাতে পোলিং এজেন্টদের বাসায় বাসায় অভিযান চালানো হয়। যাতে তারা ভয়ে ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত না হয়। ঘটনাচক্রে মনে হয় সরকার, নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মিলে এই প্রহসনের নির্বাচন মঞ্চস্থ করলো। বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সরকার দলীয় ক্যাডাররা আনসার-ভিডিপি’র নাম লেখা বিভিন্ন রংয়ের পোষাক পরে কেন্দ্রে কেন্দ্র পাহারা বসায়। পাড়ায়-মহল্লায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় সন্ত্রাসীরা একচ্ছত্র আধিপত্য কায়েম করে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতিতে ভাংচুর, হামলা, নির্যাতন, ভোট ডাকাতি, মা-বোনসহ ভোটারদের মারধর করে কেন্দ্র থেকে বিতাড়িত করে নির্বিঘ্নে জালভোটের রাজত্ব কায়েম করে। সকাল ৯টায় অনেক ভোটকেন্দ্রে ব্যালট পেপার সংকটের অভিযোগ পাওয়া যায়। অতীতের সকল প্রহসনের নির্বাচনকে ছাপিয়ে সরকার নিলজ্জভাবে সাধারণ জনগণের ভোটাধিকার ও গণতান্ত্রিক অধিকার আবারও গলাটিপে হত্যা করলো। এই অবস্থায় ঢাকাবাসীসহ সারা দেশের গণতান্ত্রকামী জনগণ ও বিশ্ববাসী ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইলো।

অনতিবিলম্বে বিচারবিভাগীয় নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটির মাধ্যমে উপরোক্ত ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান ফিনল্যান্ড বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

এই বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন, ফিনল্যান্ড বিএনপির সভাপতি জামান সরকার, সাধারন সম্পাদক মবিন মোহাম্মদ, সিনিয়র সহ সভাপতি মোকলেসুর রহমান চপল, সহ সভাপতি এজাজুল হক ভূঁইয়া রুবেল, বদরুম মনির ফেরদৌস, আওলাদ হোসেন, প্রদীপ কুমার সাহা, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান মিঠু, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সামসুল আলম, আবদুল্লাহ আল মাসুদ, আবুল কালাম আজাদ, নিজাম আহমেদ, তাজুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, সাইফুর রহমান সাইফ, মোস্তাক সরকার, যুগ্ম সম্পাদক আলাউদ্দিন আহমেদ, ইব্রাহিম খলিল, আশরাফ উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম, সোলেমান মোঃ জুয়েল, সাজ্জাদ মুন্না, নুরুল ইসলাম, সাগর, আরিফুজ্জামান বাবু, মামুন হোসেন, মুকুল হোসেন, সবুজ খান, রাসেল খান, নজরুল ইসলাম, মোঃ জুয়েল, আরিফ আহমেদ, ফাহমিদ-উস-সালেহীন, মোহাম্মদ হাসিব উদ্দিন, শাকিল নেওয়াজ ও সাজিদ খান জনি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: