সর্বশেষ আপডেট : ৫৮ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

হাতের মেহেদী রং মুছার আগেই স্বামীকে হারিয়ে পাগলপ্রায় নববধু!

habiganj-নবীগঞ্জ থেকে মতিউর রহমান মুন্না::
নবীগঞ্জ আইনগাঁও-নবীগঞ্জ সিএনজি ষ্ট্যান্ডের দখলকে কেন্দ্র করে গত শনিবার দুপুরে সংঘটিত ঘটনায় নোয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা এবং সিএনজি ম্যানাজার ফারুক মিয়া’র বড় ছেলে হেলাল মিয়া (বিএ পরীক্ষার্থী) প্রতিপক্ষের আঘাতে ডান চোঁখ নষ্ট হয়ে গেছে। সে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল। এদিকে রবিবার বিকালে সন্ত্রাসীদের হাতে ছোট ভাই বেলাল মিয়া খুন হওয়ার খবরে মেডিকেল কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে একদিনের জন্য গতকাল সোমবার লাশের সাথে সিলেট থেকে বাড়ি আসে। ওই দিন বিকালে জেকে হাইস্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত বেলাল মিয়ার জানাযার নামাজে পিতা ফারুক মিয়ার কাঁেধ ভর করে উপস্থিত হলে এক হৃদয় বিদায়ক দৃশ্যে সৃষ্টি হয়। এক ছেলের লাশ, আরেক ছেলে চোঁখ হারানোর যন্ত্রনায় নির্বাক হয়ে পড়েন পিতা ফারুক মিয়া। অশ্রুসিক্ত হয়ে জনতার কাছে এই নির্মম ঘটনার বিচার দাবী করেন তিনি।

এদিকে বিয়ের দেড় মাসের মাথায় হাতের মেহেদীর রং মুছার আগেই সন্ত্রাসীদের হাতে খুন হওয়া স্বামী বেলাল মিয়াকে হারিয়ে পাগল প্রায় বিধবা স্ত্রী রোমেনা বেগম (১৮)। ভালবেসে প্রায় দেড়মাস আগে বেলাল মিয়ার সাথে বিয়ে হয় নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের বৈঠাকাল গ্রামের রোমানা বেগমের। কে জানতো বিয়ের সাজ মুছে যাওয়ার আগেই ঘাতক সন্ত্রাসীদের নির্মম আঘাতে তার স্বামী ওপারে চলে যাবে। ঘটনার পর থেকেই শোকার্ত স্ত্রী রোমানা বেগম এর আহাজারিতে এলাকার বাতাস ভারি হয়ে উঠে। বার বার মুর্ছা যাচ্ছে স্বামীর মৃত্যুর খবর পেয়ে। গতকাল সোমবার লাল বেনারশি শাড়ীর বদলে স্ত্রী রোমানার পড়নে শুভা পাচ্ছে বিধবার সাদা শাড়ী। বিয়ের দেড় মাসের মাথায় এ দৃশ্য কোন সভ্য সমাজ বা জাতি কখনও কামনা করেনি। অশ্রুসিক্ত রোমানা বেগম এ প্রতিবেদককে জানায়, ঘটনার আধা ঘন্টা আগে তার স্বামী বেলাল মিয়া পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ভাসুর হেলালকে দেখে সিলেট থেকে বাড়ি ফিরে। বিকালে গাড়ী ভাড়া এবং ভাইয়ের চিকিৎসার জন্য বিকাশে সিলেট টাকা পাঠানোর কথা বলে ঘর থেকে বের হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই খবর পেয়ে সন্ত্রাসীরা তার স্বামীর উপর অর্তকিত ভাবে হামলা চালিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। খবর পেয়ে পাগলের মতো ছুটে যান হাসপাতালে। জ্ঞান শুন্য স্বামীর সাথে শেষ কথা টুকুও বলতে পারেনি রোমেনা। রোমানা বেগম তার স্বামীর খুনিদের গ্রেফতার পুর্বক ফাসিঁর দাবী জানিয়েছেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: