সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রচারণায় সরব ছিল নারী: উত্তরে মা, দক্ষিণে বউ

Afroza Abbas-campaign-1নিউজ ডেস্ক :: ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যে বিষয়টি নতুন করে সামনে এসেছে তা হলো নারীদের দলবদ্ধভাবে প্রচারণায় অংশ নেওয়া। বারবার আলোচনায় উঠে এসেছে মেয়র নির্বাচনে সরকার সমর্থক দুই প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনি প্রচারে থাকা দুই নারী। তরুণ প্রার্থীরা নারী সহযোদ্ধা এবং পরিবারের নারী সদস্যদের হাত ধরে মাঠে ময়দানে ভোট চেয়ে বেড়িয়েছেন। এখন কেবল তাদের এই পরিশ্রমের ফলের অপেক্ষায়।

অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির সমন্বয়ক তাসলিমা আকতার বলেন, ‘অনেকের সঙ্গে কথা হলো। এটা আমাদের কাজের অংশ। আমরা আসলে সেভাবে ভেবে নামিনি। সব কর্মীরাই তাদের নেতার হয়ে কাজ করতে মাঠে নেমেছেন।’

ভোটের বাজারে যাদের বেশি সরব দেখা গেছে তারা হলেন মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস। আর তাবিথ আউয়ালের মা নাসরিন আউয়াল। আনিসুল হকের প্রচারণার সময় তার সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী রুবানা হক, তারানা হালিম, দীপুমনিসহ বেশ কয়েকজন রাজনৈতিক সহযোদ্ধা বন্ধু। এছাড়া তার প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার নারী কর্মীকে উৎসবমুখর পরিবেশে প্রচারণা চালাতে দেখা গেছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে সরকার সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সাঈদ খোকনের বিপরীতে ছায়াযুদ্ধ করছেন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মির্জা আব্বাস। বিএনপির এই নেতা পলাতক অবস্থায়ই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় ভোটারদের মুখোমুখি হয়েছেন তার স্ত্রী। গণমাধ্যমের কল্যাণে দেখা গেছে তিনি বেশ সরব ছিলেন পুরো প্রচারণার সময় জুড়ে। নিয়েছেন নতুন নতুন কৌশল। এরই মধ্যে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর বাসায় গিয়ে নামাজও আদায় করে এসেছেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রার্থী আনিসুল হকের বিপরীতে লড়ছেন তাবিথ আউয়াল। বিএনপি কার্যালয় সূত্র বলছে, রাজনীতিতে অনভিজ্ঞ বাবার পরিচয়ে বেড়ে ওঠা এই প্রার্থীকে বিএনপির’ সমর্থন এসেছে তার মা নাসরিন আউয়ালের কল্যাণে। শুধু সমর্থন না, অনভিজ্ঞ তাবিথের পক্ষে শুরু থেকেই নির্বাচনের মাঠে ছিলেন তার মা নাসরিন আউয়াল। এছাড়া দলীয় নারীকর্মীরা পাশে ছিল।

এই প্রার্থীদের মধ্যে কে এগিয়ে যাবেন তা জানতে আর বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে না। কিন্তু এবারের নির্বাচনে প্রচারণার ভিন্নতা, সৃজনশীলতা রাজনৈতিক মাঠের ভবিষ্যত পরিবেশ বদলে দিতে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। প্রচারণার সময় ও ধরন বিশ্লেষণে দেখা যায়, অনেক অভিজ্ঞ রাজনৈতিক নেতার মতই তারা নির্বাচনী প্রচার আর কৌশল নির্ধারণ করেছেন।

এদিকে নির্বাচন পরিদর্শকরা বলছেন, এবারের প্রচারণায় নতুন যে বিষয় যোগ হয়েছে তা নারীদের নির্বিঘ্নে প্রচারণায় অংশ নেওয়া। উত্তরের মেয়র প্রার্থী জোনায়েদ সাকি তার নির্বাচনি প্রচারণায় সঙ্গে পেয়ছেন গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতিসহ বিপ্লবী নারীসংহতির নারীকর্মীদের। বাজারে, পাড়ায়, প্রধান সড়কে কখনও পায়ে হেঁটে, কখনও পিকআপ ভ্যানে তাদের জোর কদমে চলতে দেখা গেছে। একই সঙ্গে কৃষ্ণকলি, বন্যা মির্জার মতো তারকারা ছিলেন মাঠে।

শেষ শুক্রবারকে ধরে প্রার্থীরা জোরদার প্রচারণা চালিয়েছেন। এদিন সিপিবি সমর্থিত প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল ক্বাফী মিরপুর, কাফরুল ও ভাষানটেকের নানা জায়গায় প্রচারণা চালিয়েছেন। পুরো সময়টাতে নারী ভোটারদের কাছে পৌঁছাতে তার সঙ্গে ছিল নারী সহযোদ্ধাদের একটি টিম।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আনু মোহম্মদ এ বিষয়টি সম্ভাবনার ইঙ্গিত হিসেবেই দেখতে চান। তিনি বলেন, ‘প্রচারে নারীর অধিক উপস্থিতি জনগণের নাগরিক হিসেবে সক্রিয় ভূমিকার পরিসর বাড়াচ্ছে। এই উপস্থিতি যতো বাড়বে ততই সমাজে-রাজনীতিতে নিরাপত্তা ও গণতান্ত্রিক বোধের প্রসার ঘটবে।’

নারীবাদী সমাজকর্মী নাহিদ সুলতানা যদিও এ সংখ্যাকে অপ্রতুল হিসেবেই দেখেন। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় অনুপাতে এটা খুবই সামান্য। তারপরও যেটুকু নারী বেশি দেখা যাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে তা তরুণ প্রার্থীদের জন্য বেশি দেখা গেছে। আর তারা কেউ অর্থের বিনিময়ে কাজটি করছেন না। করছেন নিজ নিজ আদর্শের জায়গা থেকে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক (উচ্চ শিক্ষার্থে বর্তমানে প্রবাসে বসবাসরত) জোবাইদা নাসরিন বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, পাবলিক পরিসরে রাজনৈতিক সত্তা হিসেবে নারীর পরিচিতি অনেক বেড়েছে, সেই সঙ্গে নারী তার নিজের জায়গাটিও বুঝে নিতে চায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটি নগর বা শহর ভিত্তিক নির্বাচন হওয়ার কারণে কর্মজীবী নারীর সংখ্যাও বেশি হওয়ায় নারীদের সঙ্গে গণসংযোগ বেশি ফলপ্রসু হচ্ছে।’

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: