সর্বশেষ আপডেট : ১৫ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মঞ্জুরকে সমর্থন দিয়ে সরকারকে শিক্ষা দিতে চায় হেফাজত

1. hefajotনিউজ ডেস্ক::
চট্টগ্রামে আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সরকার সমর্থিত মেয়র প্রার্থীর বিপক্ষে ব্যাপক প্রচারণা চালাচ্ছে কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক ইসলামি সংগঠন হেফাজতে ইসলাম। সরকারকে একটি উপযুক্ত শিক্ষা দিতেই সংগঠনটি এই ফন্দি করেছে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে বেশ কয়েকটি গোয়েন্দা সংস্থা নিশ্চিত করেছে যে, ২০১৩ সালের ৫ মে শাপলা চত্বরের অভিযানের প্রতিশোধ হিসেবেই শীর্ষ হেফাজত নেতারা নগরীর সরকার সমর্থিত মেয়র প্রার্থী অাজম নাসির উদ্দিনের পরাজয় দেখতে আগ্রহী।

বিষয়টি নিয়ে হেফাজতের যুগ্ম সম্পাদক মাইনুদ্দিন রুহি বলেন, ‘সিটি করপোরেশন নির্বাচনগুলোতে সরকার সমর্থিত মেয়র প্রার্থীদের পরাজয় অাসন্ন। হেফাজতের সদর দফতর চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে অামরা সরকার সমর্থিত মেয়র প্রার্থীকে কোনও ভাবেই গ্রহণ করবো না।’

তিনি অারও বলেন, ‘২০১৩ সালের ৫ মে ঢাকার শাপলা চত্বরে ঘুমন্ত মানুষদের ওপর যারা সরাসরি গুলি করেছিল, চট্টগ্রামের ভোটাররা তাদের কখনোই ভোট দেবে না। সেজন্যই ২৮ এপ্রিলের নির্বাচন সরকারকে জবাব দেওয়ার মোক্ষম সময়।’ এই সময়ে বিশেষ করে চট্টগ্রামে সরকার সমর্থিত প্রার্থীকে নির্বাচনে পরাজিত করতে যা করা প্রয়োজন হেফাজত তার সবই করবে বলেও জানান তিনি।

রুহির সঙ্গে উপস্থিত সংগঠনটির অারেক শীর্ষ নেতা বলেন, চট্টগ্রাম শহরে হেফাজতের সমর্থকদের কমপক্ষে ২ লাখ ভোটার অাছে। তারা অবশ্যই সরকারকে একটা জবাব দেবে।’

বিভিন্ন রাজনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামে নির্বাচনি প্রচারণার শুরু থেকেই হেফাজত কর্মীরা ইসলামি ঐক্য জোটের ব্যানারে বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এম মঞ্জুর অালমের পক্ষে কাজ করছেন।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, এরইমধ্যে নির্বাচনি প্রচারণার শুরুতে নগর বিএনপি প্রধান অামীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও দলটির চেয়ারপার্সনের এক উপদেষ্টার সঙ্গে হেফাজত নেতাদের বৈঠক হয়েছে। এছাড়াও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অাবদুল্লাহ অাল নোমানের সঙ্গে সংগঠনটির নেতাদের বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে নির্বাচনে মঞ্জুর জিতলে তাদের সব দাবি মেনে নেওয়া হবে বলে হেফাজত নেতাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিএনপি নেতারা এমন তথ্যও রয়েছে।

হেফাজতের একজন নীতিনির্ধারক বলেন, অামরা একটি অরাজনৈতিক সংগঠন, তাই সরাসরি কোনও দল বা মার্কার পক্ষে কাউকে ভোট দিতে বলতে পারি না। কিন্তু তারপরও ভোট দেওয়ার অাগে বিশেষ করে চট্টগ্রামে অামরা ভোটারদের পরামর্শ দিতেই পারি।’

ওই শীর্ষ হেফাজত নেতা অারও বলেন, ‘অামরা নাস্তিক অার অ-ইসলামিক শক্তিকে ভোট না দিতে মানুষদের পরামর্শ দিয়েছি।’ জনতা তাদের অাহ্বানে সাড়া দিচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।

২০১০ সালে প্রতিষ্ঠা হলেও, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও জামায়াতে ইসলামীকে নিষিদ্ধের দাবিতে ২০১৩ সালে শাহবাগে ঐতিহাসিক গণজাগরণ শুরু হলে হঠাৎই প্রকাশ্যে অাসে কট্টরপন্থি হেফাজত। যদিও সংগঠনটির প্রধান অাহমেদ শফী এবং তার অধঃস্তন জুনায়েদ বাবুনগরী ছাড়া বাকি নেতাদের প্রায় সবাই এসেছেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট থেকে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: