সর্বশেষ আপডেট : ৩৯ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জামালগঞ্জ আওয়ামীলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ

2. daily sylhet ovijugআল-হেলাল, সুনামগঞ্জ::
জামালগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও কালিপুর নেছারিয়া দাখিল মাদ্রাসা পচিালনা কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও স্বজন প্রীতির অভিযোগ করেছেন একই মাদ্রাসার সুপার মোঃ নুরুল ইসলাম। ২২ শে এপ্রিল মাদ্রাসার সুপার মোঃ নুরুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে এ অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আওয়ামী লীগ নেতা কালিপুর নেছারিয়া দাখিল মাদ্রাসার সভাপতি মোহাম্মদ আলী নিয়োগ বানিজ্য ও অন্যান্য কাজে উৎকোচ গ্রহন,দুর্নীতি ও স্বজন প্রীতির প্রস্তাব দেন মাদ্রাসার সুপারকে। সভাপতির নানান অনিয়মে সুপার সায় না দেয়ায় অফিসিয়াল কাজে স্বাক্ষরের জন্য গেলে স্বাক্ষর না দিয়ে হয়রানী ও প্রতিষ্ঠানের ভাল কাজে বাঁধা প্রদান ও অহেতুক হয়রানি করেন। যার ফলে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে বিঘœ হচ্ছে। সুপার অভিযোগপত্রে আরো উল্লে¬খ করেন প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসাবে অনিয়ম কোন কাজে জড়িত হইতে পারিনা। সময়মতো বেতন ভাতা উত্তোলন করতে উনি বিল ভাউচারে স্বাক্ষর করতে দেরি করেন। প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারিগণ সভাপতির প্রভাবে অতিষ্ট ।

এ ব্যাপারে কালিপুর নেছারিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মোঃ নুরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আমার শিক্ষকতার চাকরি জীবন ১৯ বৎসর শিক্ষক হিসাবে কর্মরত আছি। বর্তমানে যে অবস্থায় ম্যানেজিং কমিটি সভাপতি অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি করার চেষ্টা করছেন তা কোন দিন দেখিনি। আমরা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে বার বার হোচট খাচ্ছি। অভিযোগটিকে মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত উল্লেখ করে কমিটির সভাপতি আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী বলেন, আমরা নির্বাচিত কমিটি নানা অনিয়মের বিষয় নিয়ে মাদ্রাসা সুপারের কাছে জবাবদিহীতা চেয়েছি।

তিনি কমিটিকে পাশ কাটিয়ে ছুটিসহ অনেক সুবিধাই অবৈধভাবে ভোগ করে যাচ্ছেন। জবাবদিহীতা না করায় তার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছি। এসব অভিযোগের তদন্ত চলছে তার বিরুদ্ধে। আমার দায়েরকৃত তহবিল তছরুপসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ থেকে আত্মরক্ষার লক্ষ্যেই মাদ্রাসা সুপার কাউন্টার অভিযোগ করেছেন। নিজেকে দূর্নীতির উর্ধে উল্লেখ করে তিনি বলেন,আমি ব্যাক্তিগতভাবে মাদ্রাসার উন্নয়নে অনেক অবদান রেখেছি। আমি সুপারকে বলেছি মাদ্রাসা মসজিদ আল্লাহর ঘর। এই প্রতিষ্ঠানের তহবিল থেকে তিনি যেন আমি অথবা কমিটির কাউকে এক কাপ চা পর্যন্ত না খাওয়ান।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: