সর্বশেষ আপডেট : ২৪ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২১ জুলাই, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল এক স্কুলছাত্রী

2500252002520জগন্নাথপুর সংবাদদাতা
পাত্র প্রবাসী তাই মেয়ের বিয়ের বয়স হয়নি জেনেও ডাকডোল পিটিয়ে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল জগন্নাথপুর পৌরসভা কেশবপুর গ্রামের ওয়াহিদ আলীর মেয়ে কেশবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রীর। শুক্রবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল একই গ্রামের ঝনিক মিয়ার ছেলে মালেশিয়া প্রবাসী শেলু মিয়ার সাথে। বিয়ের সব আনুষ্ঠানিকতায় শুরুর আগেই উপজেলা প্রশাসন থেকে এ বিয়ে বন্ধ করতে কঠোর নিদেশ দেয়া হয়। পরে উভয় পরিবারের সন্মতিতে বিয়ের আয়োজন বন্ধ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ূন কবীরের নির্দেশে জগন্নাথপুর থানা পুলিশের বাধার মূখে বাল্য বিবাহটি পন্ড হয়ে যায় ।
এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে থানার এসআই কবীর হোসেন জানান, আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয় পক্ষকে বাল্য বিবাহের আয়োজন বন্ধের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করেছি। এ বাল্য বিবাহ হত্তয়ার আর কোন সুযোগ নেই।
কেশবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফররুখ আহমদ বলেন, উভয় পরিবার ১৮ বছর হওয়ার পর বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ায় বাল্য বিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেল আমার বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রীটি।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন, বাল্য বিবাহ যাতে না হয় সেজন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে মেয়ের বাবাকে বুঝানো হয়েছে। পরে উভয় পরিবারের সন্মতিতে এবিয়ে বন্ধ হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: