সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ২৮ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কানাইঘাটে গ্রেফতার ২ ডাকাতের স্বীকারোক্তি : প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির সাথে জড়িত ছিলাম

news_imgকানাইঘাট সংবাদদাতা: কানাইঘাট থানা পুলিশ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের দুই ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত এ দুই ডাকাত উপজেলার সাতবাঁক ইউপির লালারচক গ্রামের সৌদি প্রবাসী রফিক আহমদের বাড়ীতে ডাকাতির ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

গত সোমবার থানার এসআই তাপস চন্দ্র ও এসআই রবিউল ইসলাম প্রথমে কানাইঘাট সড়কের বাজার থেকে জকিগঞ্জ উপজেলার পূর্ব খাল পাড় গ্রামের মঈন উদ্দিনের পুত্র একাধিক ডাকাতি মামলার আসামী কুখ্যাত ডাকাত শাহাব উদ্দিন ওরফে সাবুল আহমদ (২৫) কে গ্রেফতার করে। পরে তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির সূত্র ধরে এই দুই পুলিশ কর্মকর্তা একই দিনে বিয়ানীবাজার উপজেলায় অভিযান চালিয়ে সোপাতলা গ্রাম থেকে মস্তাকিন আলীর পুত্র ডাকাত মো. আমির হোসেন ওরফে সোহেল (৩০) কে গ্রেফতার করেন।

গ্রেফতারকৃতরা পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রায় ২ মাস পূর্বে সাতবাঁক ইউপির লালারচক গ্রামের প্রবাসী রফিক আহমদের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। এছাড়া এ দুই ডাকাতের কাছ থেকে পুলিশ বেশ কিছু ডাকাতি ঘটনার চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে প্রবাসীর স্ত্রীর দায়েরকৃত ডাকাতি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তাপস চন্দ্রের বলেন, প্রাথমিক পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদ ও পরবর্তীতে সিলেটের বিজ্ঞ আদালতে গত মঙ্গলবার গ্রেফতারকৃত ডাকাত শাহাব উদ্দিন ও আমির হোসেন ১৬৪ ধারায় প্রবাসী রফিক আহমদের বাড়িতে ডাকাতির কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। তবে পুলিশ প্রবাসীর বাড়ি থেকে লুন্ঠিত ডাকাতির কোন মালামাল উদ্ধার করা যায়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: