সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম!

BF3-A004খেলাধুলা ডেস্ক: উন্মুক্ত করে দেয়া হচ্ছে শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম। পূর্বাচলে হবে নতুন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম। শুধু তাই নয়, কক্সবাজারের রামুতে এক লাখ দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন আন্তর্জাতিকমানের স্টেডিয়াম তৈরির নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সোমবার মন্ত্রিপরিষদের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব নির্দেশনা দিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদারকে। সেই সঙ্গে ক্রিকেটের পাশাপাশি হকি, শুটিং ও আরচারির প্রতি বিশেষ নজর দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের বাইরে ছয়টি ক্রিকেট স্টেডিয়াম রয়েছে। সরকার মনে করছে, শেরেবাংলা স্টেডিয়াম ফুটবলের জন্য তৈরি হয়েছিল। রাজনৈতিক কারণে ওই স্টেডিয়ামটি সংস্কার করে ক্রিকেটের উপযোগী করা হয়। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম ক্রিকেটের জন্য তৈরি হলেও তাতে ফুটবল খেলা চালানো হচ্ছে। এসব দিক বিবেচনা করে পূর্বাচল নতুন শহরে একটি আন্তর্জাতিকমানের ক্রিকেট স্টেডিয়াম তৈরির নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এক নম্বর সেক্টরে জাতীয় স্পোর্টস কমপ্লেক্সের জন্য বরাদ্দকৃত জায়গার একটি অংশে এ স্টেডিয়াম নির্মিত হবে। যার দর্শক ধারণক্ষমতা হবে কমপক্ষে ৩০ হাজার। কুড়িল ফ্লাইওভার পার হওয়ার পর ৩০০ ফুট হাইওয়ের পাশেই এ স্টেডিয়াম তৈরি হবে। স্টেডিয়ামের কাছেই ইকো পার্ক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য জায়গা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এর পাশাপাশি কক্সবাজারের রামুতে নির্মাণ করা হবে এক লাখ দশ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম।
এ স্টেডিয়াম সব খেলার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। পূর্বাচল স্টেডিয়াম নির্মাণের পর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামটি অন্য খেলাধুলার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে। মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা পাওয়ার পরপরই কাজ শুরু করে দিয়েছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। সোমবার বিকেলে রাজধানী উন্নয়ন কর্পোরেশনের কাছ থেকে পূর্বাচল শহরের ম্যাপ নিয়ে আসে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ।

আজ প্রস্তাবিত জায়গা পরিদর্শনের জন্য পূর্বাচল যাচ্ছেন ক্রীড়া পরিষদের সচিব শিবনাথ রায় ও পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) জিয়াউল হাসানসহ অন্য কর্মকর্তারা। ২৬ এপ্রিল কক্সবাজারের রামুতে যাবেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার।
এদিকে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জেতায় বাংলাদেশ দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গে ক্রিকেটের পাশাপাশি হকি, শুটিং ও আরচারির প্রতি বিশেষ নজর দেয়ার জন্য ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, ‘কক্সবাজারকে ঘিরে নতুন অর্থনৈতিক জোন তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। গভীর সমুদ্রবন্দর, আন্তর্জাতিক নেভাল বেজ, ক্যান্টনমেন্টসহ কক্সবাজারে বিভিন্ন স্থাপনা গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে।

সরকার কক্সবাজারকে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে ব্যাপক পরিচিতি করানোর পাশাপাশি এর সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোরও পদক্ষেপ নিয়েছে। যার অংশ হিসেবে রামুতে আন্তর্জাতিকমানের স্টেডিয়াম তৈরি করা হবে। মন্ত্রণালয় থেকে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রকল্পের সম্ভাবতা যাচাই-বাছাইয়ের জন্য দুয়েক দিনের মধ্যে কক্সবাজার পাঠানো হবে।
তাদের রিপোর্ট পাওয়ার পরপরই আমি নিজে যাব।’ প্রতিমন্ত্রীর কথা, ‘শুধু আন্তর্জাতিকমানেরই নয়, স্টেডিয়াম দুটিকে দৃষ্টিনন্দন ও আগামী ১০০ বছরের উপযোগী করে তৈরি করার পরিকল্পনা আমরা গ্রহণ করব। প্রয়োজনে বিদেশী বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে এর নকশা তৈরি করা হবে।’

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: