সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ৫২ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নবীগঞ্জে আইপিএল নিয়ে জমজমাট বাজির আসর!

02143মতিউর রহমান মুন্না, নবীগঞ্জ:
চলছে ইন্ডিয়া প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) খেলা। ভারতের মাটিতে খেলা হলেও বাংলাদেশে যেন এর জোয়ার বইতে শুরু করেছে। আইপিএল নিয়ে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলায় চলছে প্রতিদিন জমজমাট বাজির জোয়া খেলা।

নবীগঞ্জ পৌর শহর ছাড়াও উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাটবাহজারসহ গ্রামে-গঞ্জে নির্বিঘেœ বাজিকররা এ খেলা চালিয়ে যাচ্ছে। এতে জড়িয়ে পড়েছে স্কুল কলেজের ছাত্র/ছাত্রীসহ ব্যবসায়ীরা। ক্রিকেট নিয়ে জুয়ায় জড়িয়ে পড়া অনেকেই এর মধ্যে অনেক কিছুই হারিয়েছে। অনেকেই নিজেদের মোবাইল থেকে শুরু করে খুইয়েছে নগদ টাকা।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ক্রিকেটের এই বাজির খেলায় ১শ’ থেকে ১ লক্ষ টাকা বাজি ধরা হচ্ছে। আইপিএল শুরুর পর থেকে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বাজিকররা। শহরের নতুন বাজার, মধ্যবাজার, হাসপাতাল রোড, গন্ধা পয়েন্ট, শহরের বাইরে গয়াহরি, দেবপাড়া, ইনাতগঞ্জ, আউশকান্দি, পানিউমদা, ইমামবাড়ি, গজনাইপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় আইপিএলকে ঘিরে গড়ে উঠেছে বাজিকরদের সিন্ডিকেট। এইসব এলাকায় প্রতিদিনই সিন্ডিকেটের মাধ্যমে আইপিএল নিয়ে বাজির জমজমাট খেলা হয়।

সূত্রে জানা যায়, আইপিএলের ম্যাচ নিয়ে শহরের বিভিন্ন বিপণী বিতান, চায়ের হোটেল, পানের দোকান, সোনার দোকান থেকে শুরু করে সর্বত্র চলছে বাজির খেলা। জুয়াড়িরা বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ হয়ে অংশগ্রহণকারী দুদলের মোট রান, খেলোয়াড়ের ব্যক্তিগত রান-উইকেট, ম্যাচ চলাকালে ওভার প্রতি ছক্কা-চার, ওভার প্রতি কত রান উঠতে পারে বা কয়টা উইকেট পড়তে পারে, ওভারে কোনো নো বল বা ওয়াইড হবে কি না এসব নিয়ে তাৎক্ষণিক নির্ধারিত হারে অর্থ বাজি ধরা হয়। থাকছে কোনো দলের জয়-পরাজয়ের ওপর বড় অংকের বাজি। বিশেষ করে রাস্তার মোড়ের দোকান গুলোতেই বসে বেশি হচ্ছে এই খেলা।

আবার অনেকেই অত্যন্ত গোপনীয়তা আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক এবং মোবাইল ফোনের মাধ্যমেও খেলছে এই জোয়া খেলা। এ জুয়া খেলার টাকা ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে অনেকস্থানে হাতাহাতি ও বন্ধুদের মাঝে মনোমালিন্যর খবরও পাওয়া গেছে। বিশেষ করে বন্ধু-বান্ধবী, প্রতিবেশী ব্যবসায়ীদের মাঝেই বেশি বাজি ধরা হয়ে থাকে। বিভিন্নস্থানে অভারের প্রতি বলে বলেও বাজি ধরা হয়।

এদিকে, ক্রিকেট জুয়া নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন অবিভাবকরা। সন্তানরা কে কখন কিভাবে এইখেলা খেলছে জানতে পারছেন না তারা।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: