সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘হিউম্যানয়েড রোবট’ তৈরী করলেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মাঈনুল

8. moynulনিউজ ডেস্ক::
বোমা নিস্ক্রিয়করণ, যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহারসহ নানান বিপদজ্জনক কাজে সাহায্যকারী হিসেবে ব্যবহার করা যাবে এমনই এক রোবট তৈরী করলেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিইউইটি) যন্ত্রকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র মোহাম্মদ মাঈনুল হাসান। মাইনুল হাসান তার তৈরী রোবটটির নাম দিয়েছেন হিউম্যানয়েড রোবট (SM-1805)। SM-1805-এমন একটি রোবট, যা দেখতে অনেকটা মানুষের মতো । উচ্চতা আনুমানিক চার ফুট । রোবটটি ম্যানুয়েল এবং অটোমেটিক দুই ভাবেই চলতে পারে।

দূর থেকে নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে এর দ্বারা বিপদজনক কাজ সম্পাদন করা যায়। এটি যেকোন স্থান থেকে লাইভ ভিডিও পাঠাতে পারে। এজন্য এতে ব্যবহার করা হয়েছে 8 channel 5.8 giga herz fpv । এটি যেকোন কিছু স্থানান্তরিত করতে সক্ষম । এটিকে ভয়েস কমান্ডের সাহায্যেও নিয়ন্ত্রন করা যায়। নির্দিষ্ট কিছু কমান্ড এতে সংযোজন করা হয়েছে । প্রয়োজনে এটা ইচ্ছা মত বাড়ানো কমানো যায়।

রোবটটির নিউরাল সিস্টেম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে arduino mega-ADK এবং intel core-i3 processor । কন্ট্রোলিং এর জন্য এতে AVR ATMEGA-16 এবং RF module এর সমন্নয় ঘটানো হয়েছে । রোবটটির হাঁটা-চলার জন্য মানুষের মত পা না থাকলেও রয়েছে ২৪ ভোল্টের দু’টি গিয়ার মোটর, যা অনায়াশে রোবোটটিকে চলাচলে সাহায্য করে। রোবটটিতে বর্তমানে human interaction system – এর কাজ চলছে । এর ফলে রোবটটি এর ডাটাবেজ এ থাকা যেকোন ব্যক্তি বা বস্তুকে চিনতে সক্ষম হবে। এই ধরনের রোবটকে মোডিফাই করে ইন্ডাস্ট্রিয়াল কাজ বা উন্নত দেশের মতো বাংলাদেশের বিভিন্ন বিপদজনক কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে ।

মাঈনুল হাসান বলেন, রোবটটি তৈরীর কাজ শুরু করা হয় আজ থেকে দুই বছর আগে পহেলা বৈশাখে। মূল কাজ এক বছরের মধ্যে শেষ হলেও এখন চলছে এর উন্নয়নের কাজ।

তিনি বলেন, ছোট বেলা থেকেই আমার ইচ্ছা ছিল নিজে কিছু তৈরী করা। তাই আমি এই রোবট আবিস্কার করলাম। রোবটটি তৈরীর শুরুর দিকে পরিবার থেকে সামান্য বাঁধা দিলেও পরবর্তীতে মূল অনূপ্রেরণা যোগান তার মা রোজিনা আক্তার ও বড় ভাই মোহাম্মদ মেহেদি হাসান। তিনি আরও বলেন, ভবিষ্যতে আমি আরও ভালো কিছু উদ্ভাবণ করতে চাই। আশা করছি এ জন্য কেউ আমাকে সহযোগিত করবে।

রোবটির নামের পিছনেও রয়েছে একটি তাৎপর্য। SM-1805 নামকরনটি করা হয়েছে তার বড় ভাই তরুণ বিজ্ঞানী শহীদ মোহাম্মদ মেহেদি হাসানের নামে। যাকে এই তরুন বিজ্ঞানী রোবটিক্স ক্যারিয়ারের পথ প্রদর্শক বলে মনে করে। রোবটটি তৈরীতে যেসব শুভাঙ্কাখী ও বন্ধুরা উৎসাহ জুগিয়েছে তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মাঈনুল হাসান।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: