সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সুনামগঞ্জে বসতঘর আগুনে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের

unnamed (1)সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: পবিত্র আল-কোরআনসহ একটি বসতঘরের মধ্যে থাকা ধান চাল কাপড় চোপর ও আসবাবপত্র ছাড়াও ৪ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের মালামাল আগুনে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় গ্রাম্য মাতাল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ১৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার আমলগ্রহণকারী জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত সুনামগঞ্জ সদর কোর্টে এই মামলাটি দায়ের করেছেন সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের সৈয়দপুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজের পুত্র আব্দুল হাই।

মামলার বিবরনে প্রকাশ, ১৩ এপ্রিল সোমবার দিবাগত রাত ৩টায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে সন্ত্রাসীরা আব্দুল হাইয়ের ভাগ্নে আবুল বাশারের বসতঘরে ৫ লিটার কেরোসিন ঢেলে ছিটিয়ে দেয়। পরে ম্যাচলাইট দিয়ে ধরিয়ে দেয় আগুন। দাউ দাউ করে এই আগুন জ্বলতে থাকার একপর্যায়ে আবুল বাশারের স্ত্রী নাছিমা খাতুন ও আব্দুল হাইয়ের মেয়ে হুরে জান্নাত মাতাল সন্ত্রাসীদের চিনতে পেরে চিৎকার দেয়ায় ঐ সন্ত্রাসীরা তাদেরকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে বীরদর্পে পালিয়ে যায়।
এই ঘটনার দায়ে একই গ্রামের মৃত আব্দুল কদ্দুছ এর পুত্র মানিক মিয়া,মৃত সোনা মিয়ার পুত্র মোশাররফ, মৃত ছমির হোসেন আংরা মিয়ার পুত্র বাবরা কামাল, মৃত নায়েব আলীর পুত্র রইছ মিয়া,মৃত আক্কাছ আলীর পুত্র রবিউল,হানিফ মিয়ার পুত্র হাছু মিয়া ও মৃত আব্দুস ছোবহানের পুত্র উসমানকে আসামী করা হয়েছে। বাদীপক্ষে আদালতে মামলাটি পরিচালনা করেন এডভোকেট (এপিপি) দেবাংশু শেখর দাস।
মামলাটি আমলে নিয়ে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।
এর আগে একই চক্র জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ৪ঠা মার্চ আবুল বাশারের একই বাড়ি হতে ৪টি গাছ জোরামুলে কেটে নেয়। এই ঘটনা নিয়ে ভূক্তভোগী আবুল বাশারের পক্ষে তার আপন মামা আব্দুল হাই সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে ৫ মার্চ সন্ধ্যা ৭টায় বাদী ও তার পরিবারের ২ নারীসহ আরো ৪ জনকে বেদম মারপিঠক্রমে আহত করে সন্ত্রাসীরা। স্ত্রী ব্র্যাক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আছিয়া খাতুন ও বোনসহ আহতদেরকে হাসপাতালে ভর্তির পর আব্দুল হাই দ্বিতীয় দফায় থানায় আরেকটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ প্রথম দুটি অভিযোগ তদন্তের ব্যবস্থা নিলে গ্রামের ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস ছাত্তার আপোষে নিস্পত্তি করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভূক্তভোগীদেরকে আইনগত সহযোগীতা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত করেন।

এলাকাবাসী বলেন, ঘর পুড়ার মামলার সকল আসামীরা এলাকার চিহ্নিত মাদকসেবী সন্ত্রাসী। চেয়ারম্যান ছাত্তার তাদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা না নিয়ে এদের আশ্রয় প্রশ্রয় দেয়ার কারনেই আবুল বাশারের ঘরটিতে এরা অগ্নি সংযোগ করেছে। ঘটনার ব্যাপারে জানতে চাইলে গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আলী আহমদ,সালিশী কাছম আলী,মমিন মিয়াগং জানান,ঘরে অবশ্যই কেউ না কেউ আগুন দিয়েছে। এটা লাগান্ন্যা আগুন। গ্রামের প্যানেল চেয়ারম্যান মমিন মিয়া বলেন,পুলিশ প্রশাসন যদি মাতাল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা না নেয় তাহলে সৈয়দপুর গ্রামে আইনের শাসন বলে কিছুই থাকবেনা। স্থানীয় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নাদির শাহসহ এলাকাবাসী নিরীহ আবুল বাশারের বাড়িতে অগ্নিকান্ডের সাথে জড়িত মাতালদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবী জানান। সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেন বলেন,ঘটনাটি আমি শুনেছি। মামলার কপি পাওয়া মাত্র মাতাল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: