সর্বশেষ আপডেট : ৩৮ মিনিট ২৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গর্ভবতী কবিতা বেগমকে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত করলেন সুনামগঞ্জ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের চিকিৎসক!

Sunamganj--সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: কবিতা বেগম নামের এক গর্ভবতী মাকে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত করলেন সুনামগঞ্জ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার ডাঃ জসিম উদ্দিন। জানা যায়, সুনামগঞ্জ পৌরসভার আরপিননগর আবাসিক এলাকার বাসিন্দা আরিফুজ্জামান আরিফ তার গর্ভবতী স্ত্রী কবিতা বেগমকে নিয়ে চরম সংকঠময় মুহুর্তে শুক্রবার সকাল ৯ টায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ জসিম উদ্দিনের কাছে যান। ডাঃ জসিম উদ্দিন সন্তান সম্ভবা কবিতা বেগমকে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ভর্তির জন্য তার কাছে মোটা অঙ্কের টাকা দাবী করেন। চাহিতো টাকা দিতে রাজী না হওয়ায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের পরিবর্তে সুচিকিৎসার জন্য আনিসা হেল্থ কেয়ার প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেন তাদেরকে।
এসময় কবিতা ও তার স্বামী ক্লিনিকে ভর্তি হওয়ার মতো তাদের আর্থিক সামর্থ্য নেই বলে অনেক অনুনয় বিনয় করার পরও মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ভর্তি করেননি তাকে। কবিতার স্বামী আরিফুজ্জামান ভর্তি না করলেও আপাতত তার স্ত্রীকে দেখে ঔষধ ও ব্যবস্থাপত্র দেয়ার জন্য ডাঃ জসিম উদ্দিনকে দ্বিতীয় দফায় মিনতি জানান। কিন্তু ডাঃ জসিম ঔষধ অথবা কোনপ্রকার ব্যবস্থাপত্র না দিয়ে তাকে বলেন আপনার স্ত্রীকে সিজার করাতে হবে। আর সিজার করতে হলে যেকোন জায়গায় যাননা কেন টাকা লাগবেই। তাড়াতাড়ি আনিসায় যান। আমি আজকে জামালগঞ্জ চলে যাবো। এই মুহুর্তে আপনার স্ত্রীকে ভর্তি করলে আমি আনিসায় গিয়ে সিজার করে দেবো না হয় আমাকে পাবেন না। পরে জেলা সদর হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসাসেবা নেন কবিতা। কিন্তু ডাঃ জসিম উদ্দিন তাকে চিকিৎসা সেবা নাদিয়ে সকাল ১০টার মধ্যেই মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ত্যাগ করেন। পৌর এলাকার নাগরিক হওয়া স্বত্তেও মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ডাঃ জসিম উদ্দিনের কাছে বার বার কাকুতি মিনতি করে উপেক্ষিত হয়েছেন কবিতা বেগম।

এ ঘটনাটি নিয়ে ডাঃ জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে সরকারী সেবা প্রতিষ্ঠানে আসা সাধারন রোগী ও তাদের অভিভাবকদেও মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। অভিযোগের ব্যাপারে ডাঃ জসিম উদ্দিনের বক্তব্য জানতে চেয়ে কয়েকজন সাংবাদিক একাধিকবার কল করলেও তিনি কোন সাংবাদিকের মুঠোফোন রিসিভ করেননি। কবিতার স্বামী আরিফুজ্জামান তার স্ত্রীকে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত করার ঘটনার আসল রহস্য উদঘাটনের জন্য জেলা প্রশাসক ও পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: